ঢাকা, বুধবার, ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

যে ধরনের খাবার দেয়া হবে জাহান্নামীদের !

প্রথমবার্তা ডেস্ক, রিপোর্টঃ     জাহান্নাম! অত্যান্ত কঠিন ভয়াবহ এক যায়গা। সেখানে কষ্ট ও দুঃখের কোনো অন্ত নেই। পিপাশা আর অনাহারে কাতর হবে জাহান্নামীরা। হাদীসের বর্ণনায় পাওয়া যায়- জাহান্নামের খাদ্য হবে কাঁটা যুক্ত গাছ আর পানীয় হবে ফুটন্ত পানি, পুঁজ ও রক্তের মিশ্রণ এবং উত্তপ্ত তেল, এরপরও জাহান্নামবাসীর পিপাসা এতবেশি হবে যে, তারা এই পানীয় পান করতে থাকবে। এছাড়াও জেনে নিন জাহান্নামের কিছু ভয়াবহতা-

 

 

 

 

 

 

 

জাহান্নামের গভীরতা এমন যে, এর মুখ থেকে একটি পাথর ফেলে দিলে জাহান্নামের তলদেশে পৌঁছাতে ৭০ বছর সময় লাগে। বিচারের দিন জাহান্নাম কে ৭০ হাজার শিকল দ্বারা টেনে আনা হবে যার প্রত্যেক শিকল ৭০ হাজার ফেরেশতা বহন করবেন।

 

 

 

 

 

জাহান্নামে চাঁদ এবং সূর্যকে নিক্ষেপ করা হবে৷ আর জাহান্নামে তা অবলীলায় হারিয়ে যাবে।

 

 

 

 

জাহান্নামবাসীর শরীরের চামড়া ১২৬ ফুট পুরো করে দেওয়া হবে যাতে করে আযাব অত্যন্ত ভয়াবহ হয়, তাদের শরীরে আরও থাকবে তিল যার এক একটি হবে উহুদ পাহাড়ের সমান।

 

 

 

 

 

 

জাহান্নামের খাদ্য হবে কাঁটা যুক্ত গাছ আর পানীয় হবে ফুটন্ত পানি, পুঁজ, পুঁজ ও রক্তের মিশ্রণ এবং উত্তপ্ত তেল, এরপরও জাহান্নামবাসীর পিপাসা এতবেশি হবে যে, তারা এই পানীয় পান করতে থাকবে।

 

 

 

 

 

 

 

জাহান্নামের এই ভয়াবহতা কল্পনাতীত আযাব অনন্ত কালধরে চলতে থাকবে, জাহান্নামবাসীরা এক পর্যায়ে জাহান্নামের দেয়াল টপকিয়ে পালাতে চেষ্টা করলে তাদেরকে লোহার হাতুড়ি দ্বারা আঘাত করে ফেলে দেওয়া হবে।

Translate »