ঢাকা, বুধবার, ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ বিশ্ব শান্তিকে গুরুত্ব দেয় : রাষ্ট্রপতি

প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :   রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ বলেছেন, বাংলাদেশ সবসময় বন্ধুপ্রতিম দেশগুলোর সঙ্গে পাস্পরিক সম্পর্ক এবং বিশ্ব শাান্তি ও সম্প্রীতিকে গুরুত্ব দেয়।তিনি বলেন, ‘আমাদের বৈদেশিক নীতি স্বাধীন, যার লক্ষ্য বৈশ্বিক শান্তি ও সম্প্রীতি’।আজ বিকেলে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বঙ্গভবনে ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স (এনডিসি) ও আর্মড ফোর্স ওয়ার কোর্স (এএফডাব্লিউসি) ২০১৭-এর কোর্সের অংশগ্রহণকারীরা সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এসব কথা বলেন।

 

 

 

তিনি দেশের বৈদেশিক নীতি উল্লেখ করে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ‘সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারো সঙ্গে বৈরিতা নয়’ এমন নীতি গ্রহণ করেছিলেন।বিভিন্ন শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও সশস্ত্র বাহিনীগুলোর প্রতি পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও সহযোগিতার আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বিশ্বশান্তি ও শৃঙ্খলা রক্ষায় দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করায় শান্তি রক্ষীদের ধন্যবাদ জানান।

 

 

 

আব্দুল হামিদ বলেন, বর্তমান বিশ্বে দ্রুত উদ্ভাবন, পরিবর্তন এবং অগ্রগতির জন্যে আন্তঃনির্ভরশীলতার চেয়ে প্রয়োজনীয় আর কিছু নেই। তিনি মূল্যবোধ ও সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীদের তাদের স্ব স্ব রাষ্ট্রের প্রতি দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

 

 

 

তিনি আশা প্রকাশ করেন, দেশের মর্যাদাপূর্ণ প্রতিষ্ঠান জাতীয় প্রতিরক্ষা কলেজ থেকে গুণগত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ নিয়ে তারা অন্যদের তুলনায় বিশ্ব দরবারে উদাহরণ হয়ে থাকবে।এই কোর্সে অংশগ্রহণকারীরা পেশাদারিত্ব অর্জন করার ক্ষেত্রে ও দায়িত্ব পালনে আরো বেশি দক্ষতা অর্জন করবে বলেও রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন।

 

 

 

১৩টি বন্ধুপ্রতিম দেশের সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে মোট ২৭ সদস্যের একটি দল কৌশলগত নেতৃত্ব, জাতীয় নিরাপত্তা, জাতীয় নীতিমালা প্রণয়ন ও উন্নয়নের ওপর এ কোর্সে অংশ নেয়।রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ তাঁর বক্তব্যের শুরুতে সার্বভৌম দেশ গঠনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসামান্য অবদান ও স্বাধীনতা অর্জনে প্রাণদানকারী অসংখ্য বীর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

 

 

 

এনডিসি কমানড্যান্ট লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী, বিভিন্ন ফ্যাকাল্টির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিব, স্টাফ কর্মকর্তা, এনডিসি ও এএফডব্লিউসি’র বেসামরিক ও সামরিক কর্তাবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Translate »