ঢাকা, বুধবার, ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

লক্ষ্মীপুরের সাবেক সিভিল সার্জনকে খালাশ দিয়েছেন আদালত

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ঃ
লক্ষ্মীপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও সাবেক ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জনের মধ্যে বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতির জেরে ভ্রাম্যমান আদালতে সাজাপ্রাপ্ত ডা. সালাহ উদ্দিন শরীফকে খালাশ দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার বিকেলে লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ইকবাল হোসেন ডা. সালাহ উদ্দিন শরীফের আপিল মঞ্জুর করে তাঁকে খালাশ প্রদান করেন। পরে এ ঘটনায় ডা. সালাহ উদ্দিন শরীফকে অন্যায় ভাবে সাজা প্রদানকারীদের বিরুদ্ধে বিচার দাবী করেন তিনি।

 

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর সোমবার সকালে শহরের কাকলি স্কুলের প্রবেশ পথে আগে পরে যাওয়াকে কেন্দ্র করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শেখ মুর্শিদুল ইসলাম ও ডা. সালাহ উদ্দিন শরীফের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। তৎক্ষণিক পুলিশ ডেকে ডা. সালাহ উদ্দিন শরীফকে আটক করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে তাকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুজ্জামান।

 

বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ ঘটনা প্রকাশ ও প্রচারের পর ৫ ডিসেম্বর মহামান্য হাইকোর্ট ভ্রাম্যমান আদালতের এ সাজাকে কেন বেআইনী ঘোষণা করা হবেনা এ মর্মে রুল জারী করেন। এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শেখ মুর্শিদুল ইসলাম ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুজ্জামানকে আগামী ১৩ ডিসেম্বর সশরীরে মহামান্য হাইকোর্টে উপস্থিত হয়ে তার ব্যাখ্যা দেয়ার জন্যও নির্দেশ প্রদান করেন আদালত। একই দিন ডা. সালাহ উদ্দিন শরীফকেও হাইকোর্টে উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়।

 

এদিকে এ ঘটনার পর একই দিন লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শেখ মুর্শিদুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বদলী করা হয়।

সারাদেশ এর আরও খবর
Translate »