প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :        বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক যুবতীকে পাঁচ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ এক যুবকের বিরুদ্ধে। কিন্তু পরে ওই যুবক বিবাহিত জানার পর তার বিরুদ্ধ সিটি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে ওই যুবতী৷

 

 

 

 

 

 

পুলিশ অভিযুক্ত যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও প্রতারণার মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে৷

 

 

 

 

 

উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদের বাসিন্দা যুবতী গুরগাঁওয়ের নয়া বস্তি এলাকায় থাকত৷ জানা গিয়েছে, তার সঙ্গে লিভ-ইন সম্পর্কে থাকত গুরগাঁওয়ের সুভাষ নগর এলাকার বাসিন্দা হরিশ৷

 

 

 

 

 

দীর্ঘ পাঁচবছর ধরে তারা একসঙ্গে থাকত৷ পুলিশ জানিয়েছে, বিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও হরিশ তার বিয়ের খবর যুবতীর কাছ থেকে গোপন করে ও বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাকে ধর্ষণ করে৷

 

 

 

 

যুবতী বারবার তাকে বিয়ের কথা বললেও হরিশ পরিবারের কথা বলে বিয়ের প্রসঙ্গ এড়িয়ে যেত৷

 

 

 

 

এর কিছুদিন বাদে হরিশ অন্যত্র চলে গেলে যুবতী তার বিষয়ে খোঁজ নিতে শুরু করে৷ এরপরেই যুবতী জানতে পারে হরিশ বিবাহিত৷

 

 

 

 

 

এরপরেই সিটি থানায় ধর্ষণ ও প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করে সে৷

 

 

 

 

এসপি অপরাধ রাজেশ কুমার জানিয়েছেন, যুবতীর বয়ান ১৬৪ ধারায় আদালতে দায়ের করা হয়েছে৷ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করার জন্য তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ৷