ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সেক্রেটারী মাওলানা এবিএম জাকারিয়া বলেছেন, রমজান আমাদের সংযম শিক্ষা দেয়। তাকওয়া বা আল্লাহর ভয় চির জাগরুক রাখতে সিয়াম ফরজ বা আবশ্যকিয় করা হয়েছে।0

 

 

তিনি বলেন, মন্ত্রী-সচিবগণ রাষ্ট্র থেকে সর্বোচ্চ বেতন-ভাতা গ্রহণ করেন। এর উপর আবার মোবাইল ক্রয়ের জন্য ৭৫০০০ টাকা করে অতিরিক্ত জনগণের টাকা গ্রহণ করা রমজানের শিক্ষার সাথে সাংঘর্ষিক। জনগণের ট্যাক্সের টাকায় মন্ত্রী-সচিবগণ অতিরিক্ত সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করা এটা দেশের জন্য লজ্জাজনক। আন্তর্জাতিক মহলে দেশের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয়। পালাক্রমে এদেশ দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন, ব্যাংকের হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাট। দেশের নাগরিকদের সমস্যার অন্ত নেই। বৃহত্তর জনগোষ্ঠী মৌলিক চাহিদা পূরণ করতে পারে না। এহেন পরিস্থিতিতে উক্ত সিদ্ধান্ত সমর্থনযোগ্য নয়। মালয়শিয়ার নাজিব রাজাকের বিলাসী জীবন থেকে সরকারের শিক্ষা নেয়া উচিত। মাহাথির মোহাম্মদ বলেছেন, কেউ আইনের উর্ধে নয়; এমনকি প্রধানমন্ত্রীও নয়।

 

 

 

তিনি আজ শ্যামপুর থানার ৫৪নং ওয়ার্ড এর উদ্দ্যোগে আদর্শ সমাজ বিনির্মাণে মাহে রমজানের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। মুহাম্মদ আব্দুল আজিজ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন নগর সমাজকল্যাণ সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, থানা সভাপতি মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, সেক্রেটারী আলহাজ্ব মুহাম্মদ বেলাল হোসেন আরিফ, মুহাম্মদ জামান হোসেন প্রমুখ।

 

 

বক্তারা কুরআন নাযিলের মাসে ইসলামী সমাজ গঠনের জন্য পীর সাহেব চরমোনাইর নেতৃত্বে ইসলামী আন্দোলনের পতাকা তলে ঐক্যবদ্ধ এবং হাতপাখা প্রতীকে সমর্থন দেয়ার আহŸান জানান।