একাদশ জাতীয় সংসদ নর্বিাচনকে ঘরিে সংসদীয় আসন-৯ দনিাজপুর -৪ (চরিরিবন্দর-খানসামা) এ মনোনয়ন প্রত্যাশীদরে ব্যাপক গণসংযোগ শুরু হয়ছে।ে নর্বিাচনে অনকে সময় বাকি থাকলওে হাট,ে বাজার,ে হোটলে,ে চায়রে কাপরে প্রধান আলোচনা আগামীতে কে পাবনে মনোনয়ন। ভোটারদরে মধ্যওে কৌতুহল শুরু হয়ছে।ে
চরিরিবন্দর নর্বিাচন অফসিার সকেন্দোর আলী জানান, উপজলোয় ১২ টি ইউনয়িনে ২ লক্ষ ১০ হাজার ৩১৩ জন ভোটার ও খানসামা নর্বিাচন অফসিার রজোউল ইসলাম জানান, উপজলোয় ৬ টি ইউনয়িনে ১ লক্ষ ২১ হাজার ৩৬৯ জন ভোটার র্সবমোট এ আসনরে ৩ লক্ষ ৩১ হাজার ৬৮২ জন ভোটার রয়ছে।ে
শল্পিপতি লুসাকা গ্রুপরে চয়োরম্যান এবং মঘেনা ব্যাংক ও র্ফামাস ব্যাংকরে ডাইরক্টের আলহাজ্ব হাফজিুর রহমান সরকার (হাফজি) বলনে, নরিলসভাবে কাজ করে যাচ্ছ।ি আগামী নর্বিাচনে বএিনপি মনোনয়ন প্রত্যাশা করছনে তনি।ি

 

 

 

্এই আসনরে বএিনপরি মনোনয়ন চাচ্ছনে সাবকে এমপি আখতারুজ্জামান ময়িা ও শল্পিপতি লুসাকা গ্রুপরে চয়োরম্যান এবং মঘেনা ব্যাংক ও র্ফামাস ব্যাংকরে ডাইরক্টেও আলহাজ্ব হাফজিুর রহমান সরকার হাফজি। তবে আখতারুজ্জামান ময়িার বরিুদ্ধে এক সময় সংস্কারপন্থি হওয়ার অভযিোগ রয়ছে।ে একবার দলরে মনোনয়ন না পয়েে স্বতন্ত্র র্প্রাথী হসিবেওে তনিি প্রতদ্বিন্দ্বতিা করছেলিনে।
এই আসনে বএিনপরি নতেৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটরে শরকি জাতীয় গণতান্ত্রকি র্পাটরি (জাগপা) কন্দ্রেীয় নতো আশরাফ আলী খান জোটরে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছনে। এলাকায় তার পরচিতিি কম থাকায় তার জনপ্রয়িতা শুন্যরে কোঠায়।

 

 

 

ভোটারদরে তৃণমূল নতোদরে ও সাধারণ জনগনরে সর্মথন পতেে র্প্রাথীরা ইতোমধ্যে নানা তৎপরতা চালাচ্ছনে। অনকেইে কন্দ্রেরে সবুজ সংকতেরে জন্য সনিয়ির নতোদরে দারস্থ হচ্ছনে। সম্ভাব্য র্প্রাথীরা এলাকায় তৃণমূল নতোদরে সঙ্গে কুশল বনিমিয়, পোস্টার, লফিলটে ও বলির্বোড এবং জাতীয় শোক দবিসরে শ্রদ্ধাঞ্জলরি শুভচ্ছো ব্যানার দয়িে জনসাধারণরে মাঝে শুভচ্ছো বনিমিয় করছনে। এদরে মধ্যে এ আসনরে র্বতমান সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ও শল্পিপতি লুসাকা গ্রুপরে চয়োরম্যান এবং মঘেনা ব্যাংক ও র্ফামাস ব্যাংকরে ডাইরক্টেও আলহাজ্ব হাফজিুর রহমান সরকার (হাফজি) পুনরায় মনোনয়ন প্রাপ্তরি প্রত্যাশা করছনে। তাদরে পক্ষে নতোর্কমীরা নয়িমতি দলীয় র্কমসূচি ছাড়াও নতো-র্কমীদরে সঙ্গে তার র্সাবক্ষণকি যোগাযোগ রাখছনে। সাতনালা ইউনয়িনরে চয়োরম্যান ও ইছামতি মহলিা ডগ্রিি কলজেরে অধ্যক্ষ ফজলুর রহমান দুলালসহ নতোর্কমীরা নজি নজি উপজলোয় বভিন্নি ওর্য়াডে ঘুরে ঘুরে শল্পিপতি লুসাকা গ্রুপরে আলহাজ্ব হাফজিুর রহমান হাফজিরে পক্ষে কাজ করে যাচ্ছনে। অপরদকিে সাবকে হুইপ ও কন্দ্রেীয় কৃষকলীগরে সাবকে সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো: মজিানুর রহমান মানু নর্বিাচনী আলোচনা রয়ছেনে। তনিি নয়িমতি নজি গ্রুপরে কতপিয় নতোর্কমীদরে

 

 

 

 

সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চললওে তার তমেন জনপ্রয়িতা নইে। ৯ম জাতীয় সংসদ নর্বিাচনে আওয়ামীলীগ থকেে পদত্যাগ করে নৌকার বপিরীতে স্বতন্ত্র র্প্রাথী হয়ে টভিি র্মাকা নয়িে নর্বিাচন করে এই আসনে মাত্র ৪ হাজার ভোট পাওয়ায় তার জনপ্রয়িতায় ধস নাম।ে সসেময় দলীয় প্রধান মন্ত্রী শখে হাসনিা বরিুদ্ধে বভিন্নি বক্তব্য দয়োর কারণে নতোর্কমীরা তাকে সহজ ভাবে মনেে নবিনো বলে সাফ জানয়িে দয়িছেনে। এছাড়াও চরিরিবন্দর আমনো বাকী রসেডিন্সেয়িাল মডলে স্কুল এন্ড কলজেরে প্রতষ্ঠিাতা ও ঢাকা ল্যাব এইড হাসপাতালরে র্অথপডেক্্ির বশিষেজ্ঞ মুক্তযিোদ্ধা অধ্যাপক ডা: এম আমজাদ হোসনে বাংলাদশে আওয়ামীলীগরে মনোনয়ন পতেে তদ্বরি শুরুছাড়াও বভিন্নি এলাকায় গণসংযোগ শুরু করছেনে। তার বরিুদ্ধে গাছসহ রাস্থা দখল, রাস্তা দখল করে র্মাকটে নর্মিানসহ বভিন্নি জমি দখলরে অভযিোগ এবং এলাকার রোগীদরে অতরিক্তি ফি নয়োয়

 

 

 

সাধারণ জনগণ তার উপর অনকেটা নাখোশ। এলাকায় তার কোন পরচিতিি ও জনপ্রয়িতা নইে। অপরদকিে আলহাজ্ব আফতাব উদ্দনি মোল্লাকে র্প্রাথী হসিবেে গোপনে প্রচারণা চালাচ্ছনে। আফতাব উদ্দনি মোল্লা জানান, কন্দ্রেীয় জোট নর্বিাচনে র্প্রাথী হসিবেে মনোনয়ন দলিে নর্বিাচন করব।
শল্পিপতি লুসাকা গ্রুপরে আলহাজ্ব হাফজিুর রহমান ও আওয়ামীলীগরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী মনোনয়ন পলেে নর্বিাচনে তুমুল প্রতদ্বিন্দতিা হব।ে যে দলরে হোক অন্য কোন র্প্রাথী মাঠে সুবধিা করতে পারবনো।