যশোর শহরের রায়পাড়া এলাকায় বোনের উত্যক্তের প্রতিবাদ করতে গিয়ে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে আহত পারভীন বেগম মারা গেছেন। বুধবার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। নিহত পারভীন বেগম ওই এলাকার মৃত আক্তার কাজীর মেয়ে ও একই এলাকার হাসিবুর রহমানের স্ত্রী।
এলাকাবাসী ও স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, শহরের চাঁচড়া রায়পাড়ার মেসিয়ার খোকনের ছেলে অন্তর পারভীন বেগমের এক বোনকে উত্যক্ত করতো। কিন্তু পারভীন বেগম এ জন্য তাকে নিষেধও করেন।

 

 

গত ১৪ এপ্রিল অন্তরসহ তার সহযোগীরা পারভীন বেগমের বাড়িতে গিয়ে তার বোনকে অপহরণের চেষ্টা চালালে তিনি বাধা দেন। এ সময় অন্তর তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন।

 

 

 

স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল এবং পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দুপুরে তিনি মারা যান।

 

 

 

এ ব্যাপারে যশোর কোতয়ালী থানার ওসি কেএম আজমল হুদা জানান, হামলার শিকার পারভীন চিকিৎসাধীন অবস্থায় খুলনায় মারা গেছেন।#