রাজধানীর দক্ষিণখানে ব্রিফকেস থেকে সাথী (৮) নামের এক শিশু গৃহশ্রমিকের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নেটওয়ার্ক উদ্বেগ প্রকাশ করছে। একই সাথে এঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় এনে অনতিবিলম্বে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করে এ ধরনের হত্যা বন্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার জন্য সরকার ও প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে জানা যায় বৃহস্পতিবার (২৪.০৫.২০১৮) দক্ষিণখানের আব্দুল্লাহপুরের কোর্টবাড়ি পুলিশ চেকপোস্টে একটি রিকশায় তল্লাশি করে মরদেহ ভর্তি একটি লাগেজ উদ্ধার করে পুলিশ। লাগেজের ভেতরে আট বছর বয়সী শিশু সাথী আক্তারের লাশ ছিল। নিহত গৃহকর্মীর পা থেকে মাথা পর্যন্ত শরীরের সম্পূর্ণ অংশ জুড়েই ছিল নির্মম অত্যাচারের চিহ্ন। এমনকি পায়ের তালু-মাথায়ও ছিল জখমের চিহ্ন। এছাড়াও গলায় ছিল ফাঁসির দাগ।

গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নেটওয়ার্ক মনে করছে, সম্প্রতি সরকার ঘোষিত ‘গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতি ২০১৫’ বাস্তবায়ন না হওয়ায় দেশে একের পর এক অনাকাঙ্খিত কারণে গৃহশ্রমিকের মৃত্যু ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। তাই নেটওয়ার্ক অবিলম্বে নীতি বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।