প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :         রোজা অবস্থায় মানুষের স্বপ্নদোষ হলে করণীয় কী তা জানতে অনেকেই লজ্জাবোধ করেন। এ অবস্থায় রোজা ভেঙে গেছে মনে করে অনেকেই দিনের বেলায় পানাহার করে থাকে। আসলে এ বিষয়টি জেনে নেয়া লজ্জার কোনো বিষয় নয়।

 

 

 

 

রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষে করণীয় তুলে ধরা হলো-

কেউ কেউ মনে করেন, রোজা অবস্থায় যদি স্বপ্নদোষ হয়, তাহলে রোজা ভেঙে যায়। তাদের এ ধারণা ঠিক নয়। স্বপ্নদোষের কারণে রোজা ভাঙে না।

 

 

 

 

 

হাদিসের বর্ণনায় এসেছে, তিনটি বস্তু রোজা ভঙ্গের কারণ নয়-

০১. বমি;

০২. শিঙ্গা লাগানো ও

০৩. স্বপ্নদোষ। (মুসনাদে বাযযার, মাজমাউয যাওয়ায়েদ তিরমিজি, বাইহাকি)

 

 

 

 

 

সুতরাং রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে রোজা ভেঙে যায় ভেবে পানাহার করা ঠিক নয়। বরং রোজা পালন করে তা পরিপূর্ণ করা।

 

 

 

 

 

 

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ইসলামের বিষয়াদিসমূহ জানার ও মানার তাওফিক দান করুন। আমিন।