প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘মিরর’এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, আয়ারল্যান্ডের বাসিন্দা এওইন ও’ফাওধাগেইন স্কটল্যান্ডের বিখ্যাত হ্রদ লক নেস এর তীরে অপেক্ষায় ছিলেন বিখ্যাত জলদানবকে দেখার জন্য।

 

 

 

 

তার দাবি, তাকে নিরাশ করেনি জলদানব নেসি। প্রায় দশ মিনিট ধরে সে হ্রদের জলে ভেসে ছিল। ভাসমান নেসি’র ভিডিও তুলে রাখেন এওইন। এবং তা ইউটিউবে প্রকাশ করা মাত্রই ভাইরাল হয়ে ওঠে।

 

 

 

 

 

এওইন এর আগেও নাকি ২০ মিনিট ধরে নেসি’র জলকেলি দেখেছেন। তার ভিডিও’ও তিনি তুলেছেন। কিন্তু তখন তাকে বলা হয়েছিল এগুলো কোনো নৌকা বা অন্য কিছু। এবারে তিনি তার মোবাইল ক্যামেরায় ধরে রেখেছেন নেসি’র ঘোরাফেরা। তিনি রীতিমতো তৃপ্ত।

 

 

 

 

লক নেস’র তীরে রেজিস্টার অফ সাইটিংস অ্যাট লক নেস এর দফতর। সেখানে রক্ষিত রেজিস্টারে এওইন তার এই দর্শনকে নথিভুক্ত করেন।

 

 

 

 

এই দফতরের কর্মকর্তা গ্যারি ক্যাম্পবেল জানান, এর আগে ১-২ মিনটের ভিডিও নেসি-দ্রষ্টারা পেশ করেছেন। এবারে একেবারে ১০ মিনিটের ভিডিও।

 

 

 

 

এতে পরিষ্কার দেখা যাচ্ছে, প্রায় ২০ ফুট দীর্ঘ এক প্রাণী হ্রদের জলে ভেসে উঠছে। এবং সে জলে সাঁতরাচ্ছে, এটাও স্পষ্ট।

 

 

 

 

 

২০১৭ সালে ১১বার নেসিকে দেখা গিয়েছিল বলে দাবি করছে রেজিস্টার।

 

 

 

 

 

প্রসঙ্গত, ৫৬৫ খ্রিস্টাব্দে প্রথম এই দানবকে দেখেন আইরিশ যাজক সেন্ট কলাম্বিয়া। তার পরে থেকে ১০৮০ বার একে দেখা গেছে বলে জানায় রেজিস্টার।