প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:      এবার ফুটপাথের ক্ষুদ্র এক চা দোকানি ভাটারা থানার ৩ পুলিশ ও ১ আনসার সদস্যের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা করেছেন।

 

 

 

 

আজ মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম জাকির হোসেন টিপুর আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেন বারীধারার ফুটপাথের চা-পান সিগারেটের দোকানি মাকসুদা বেগম (৪৭)।

 

 

 

 

 

বিজ্ঞ আদালত বাদির জবানবন্দি গ্রহণ শেষে মামলাটি তদন্ত করে ডিবি (ডিসি) পুলিশকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

 

 

 

 

মামলার আসামিরা হলেন- ভাটারা থানার এসআই হাসান মাসুদ, কনস্টেবল জাকির (ড্রাইভার), অজ্ঞাতানা আরো এক পুলিশ কনস্টেবল ও এক আনসার সদস্য।

 

 

 

 

 

মামলার অভিযোগে জানা যায়, ভুক্তভোগী মাকসুদা বেগম বারীধারার জে-ব্লকে ২০নং রোডে চা-পান সিগারেটের দোকান করেন। গত ৩০ মে আসামিরা বাদির দোকানে গিয়ে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে।

 

 

 

 

বাদি তা দিতে অস্বীকার করলে দোকানে ভাঙচুর করে এবং দোকানে থাকা কলা বিস্কুট নষ্ট করে সিগারেট নিয়ে যান। আসামিরা আনুমানিক ৬ হাজার টাকা ক্ষতি সাধন করেন।

 

 

 

 

 

মামলায় আরো বলা হয়, মামলার সাক্ষী বাবুল ইসলাম রাজু ফটো সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে দোকানের মালামাল নষ্ট করার কারণ জানতে চাইলে আসামিরা বলেন, চাঁদার ১০ হাজার টাকা না দিলে যারা বাদির পক্ষ নেবেন তাদের সবাইকে ধরে নিয়ে মাদকের মামলায় ফাঁসিয়ে দিয়ে ক্রসফায়ার দেয়া হবে।

 

 

 

 

 

 

বাদি অসহায় হয়ে ভাটারা থানায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিতে গেলে তা গ্রহণ না করে হুমকি দিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দেয় কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা।

 

 

 

 

 

এসময় আসামিসহ কর্তব্যরত থানার ডিউটি অফিসার এবং বাদিকে বলে, বেশি বাড়াবাড়ি করলে ইয়াবার মামলা দিয়ে ক্রসফায়ারে দিয়ে দেব।