প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     তিন মাস পর মাঠে ফিরে নেইমারের খেলায় নেই এতটুকু ছন্দপতন। দেখে মনেই হয় না মাত্র তিন মাস আগে তাকে যেতে হয়েছিল অস্ত্রোপচার টেবিলে! ফরাসি লিগে পাওয়া পায়ের চোট খেলায় কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি।

 

 

 

 

বিশ্বকাপের আগে এমন দুর্দান্ত নেইমারকে দেখে মুগ্ধ ব্রাজিল কোচ তিতে। এমনটাই তো চেয়েছিলেন তিনি। সংবাদমাধ্যমের কাছে উচ্ছসিত কোচ বললেন, নেইমার থামবে কোথায় সেটা তার জানা নেই।

 

 

 

 

 

 

গত ফেব্রুয়ারি লিগ ওয়ানের ম্যাচে মেটাটারসাল ভেঙে যাওয়ার পর গত রোববার ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলে জেতা ম্যাচে বদলি হিসেবে মাঠে ফেরেন নেইমার।

 

 

 

 

রবিবার রাতে রাশিয়া বিশ্বকাপ সামনে রেখে অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচের শুরু থেকেই মাঠে থেকে আলো ছড়ান তিনি। ম্যাচটিতে অস্ট্রিয়াকে ৩-০ ব্যবধানে হারায় ব্রাজিল।

 

 

 

 

 

 

এক গোল করে ব্রাজিলের হয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা রোমারিওর (৫৫ গোল) পাশে বসেন নেইমার। ব্রাজিলের জয়ে অপর দুটি গোল করেন গাব্রিয়েল জেসুস ও ফিলিপে কুতিনহো।

 

 

 

 

 

অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে দাপুটে জয়ের পর দলের সেরা তারকার প্রশংসায় পঞ্চমুখ ব্রাজিল কোচ তিতে বলেন, এমনকি আমিও জানি না, নেইমারের সীমাটা কোথায়। সে কোথায় থামবে?

 

 

 

 

তার কৌশল এবং সৃজনশীলতা মনোমুগ্ধকর। যখন আমরা তাকে ম্যাচের শেষদিকে তুলে নিলাম, তার আগ পর্যন্ত সে ছিল প্রতিপক্ষের জন্য ভয়ঙ্কর।

 

 

 

 

 

 

আজ এই দলটা একটা উদাহরণ দাঁড় করিয়েছে। আমরা এই ম্যাচে গায়ের জোরে খেলার মুখোমুখি হয়েছিলাম এবং দারুণ পারফরমও করেছে ছেলেরা।’

 

 

 

 

 

উল্লেখ্য, ম্যাচটিতে ব্রাজিলের খেলোয়াড়দের শারিরীকভাবে প্রতিনিয়ত আঘাত করে গেছে অস্ট্রিয়া। অস্ট্রিয়ার ফুটবলারদের গায়ের জোরে খেলার কড়া সমালোচনা ম্যাচ শেষেই করেন নেইমার। কোচও তার ব্যতিক্রম নন।

 

 

 

 

 

 

 

এছাড়া ফুটবলপ্রেমীরাও সোশ্যাল সাইটে তীব্র সমালোচনা করছেন অস্ট্রিয়ানদের। ‘ই’ গ্রুপে আগামী ১৭ জুন সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরু করবে ব্রাজিল।