প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    দিনের আলোয় দুষ্কৃতীদের কবলে টলিউডের নায়িকা সায়ন্তিকা। দু’জন মাঝ বয়সী লোক ধারাল অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করে অভিনেত্রীকে। প্রাণ বাঁচাতে দুষ্কৃতীদের দিকে বালি ছুঁড়ে আক্রমন করেন নায়িকা।

 

 

 

 

এমনকি হাত-পা চালান সুন্দরী। গোটা ঘটনায় হালকা চোট পেলেও বহাল তবিয়তে রয়েছেন নায়িকা। কারন এসব গোটাটাই ছিল সাজানো। আসলে চলছে সায়ন্তিকার আগামী ছবির শ্যুটিং। সেই সিনেমার অ্যাকশন দৃশ্যের একটি সিকোয়েন্স নায়িকা পোস্ট করেছেন তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যালবামে। খবর কলকাতা ২৪ এর ।

 

 

 

 

টলিউডে হাই-ভোল্টেজ ড্রামা, হাই-ভোল্টেজ রোম্যান্স তো বহু অভিনেতা অভিনেত্রীই করে দেখিয়েছেন টলিউডেL তবে কজন অভিনেত্রী আছেন যাঁরা হাই-ভোল্টেজ অ্যাকশন করে দেখিয়েছেন!

 

 

 

 

 

সেই পাওয়ার প্যাকড অ্যাকশ স্কিলস নিয়ে খুব শীঘ্রই আসতে চলেছেন অভিনেত্রী সায়ন্তিকা। রাজীবের নতুন ফিল্মে র অ্যাকশন সিক্যুয়েন্স জোরদার শ্যুটিং করে চলেছেন সায়ন্তিকা। ছবির টাইটেল, চিত্রনাট্য কোনও বিষয় বিস্তারিত জানাতে নারাজ পরিচালক।

 

 

 

 

তবে এটুকু জানা গিয়েছে মুভিটিতে সায়ন্তিকা সহ অভিনয় করছেন শাকিব খান এবং নুসরত জাহান।
মনে করা হচ্ছে, এই ছবির শ্যুটিংয়ের ভিডিও পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। ক্যাপশনে লিখেছেন, “‘‘আমি হয়তো শক্তিশালী নই ৷

 

 

 

 

আমি হয়তো ততোটা দ্রুত নই ৷ কিন্তু আমি কঠিন পরিশ্রম করতে পারি।” ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, দুষ্কৃতীর ভূমিকায় অভিনয় করছেন টলিউডের দুই ভিলেন অভিনেতা। আর তাঁদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অ্যাকশন সিক্যোয়েন্সে মারকাটারি অভিনয় করে গিয়েছেন সায়ন্তিকাও।

 

 

 

 

 

সায়ন্তিকা যে কতটা ফিটনেস ফ্রিক তা তাঁর সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট দেখেই বোঝা যায়। আর পাঁচজন অভিনেত্রীর মতো ফোটোশ্যুটের ছবি, সেলফি আপলোড করেন ঠিকই৷ তবে তাঁর বেশিরভাগ পোস্ট গুলি দেখা যায় তাঁর জিম সেশনের৷

 

 

 

 

কখনও ওয়েটলিফ্টিং, কখনও পুশ-আপস, তো কখনও পাঞ্চিং৷ নানান ভাবে নিজেকে ফিট রাখতে ব্যস্ত থাকেন নায়িকা৷ তাঁর এই পোটেনশিয়াল দেখেই নিশ্চই হাই-অকটেন অ্যাকশন সিক্যুয়েন্সের জন্য রাজীবের পছন্দ সায়ন্তিকাকে।

 

 

 

 

শ্যুটিংয়ের সম্বন্ধে নায়িকা তাঁর অভিজ্ঞতা শেয়ার করে জানান, “আমরা কাল থেরে এই ফাইট সিক্যুয়েন্স শ্যুট করে চলেছি৷ একেই এতো গরম তার ওপর আউটডোর সিক্যুয়েন্স৷ ব্যাপারটা টায়ারিং হলেও, বেজ মজা লাগছে শ্যুট করতে৷

 

 

 

 

 

আর আমায় এই দৃশ্য গুলো পার্সোনালি খুব হেল্প করছে৷ আমার মাসেল গুলোকে স্ট্রং করছে আরও৷ আমার কাছে এটা পুরো এক্সারসাইজ৷ দর্শক আমায় এই ফিল্মে বেশ সিরিয়াস কিছু ফাইটিং দৃশ্যে দেখতে পাবে৷”