প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:   ‘কাস্টিং কাউচ’ নিয়ে এবার মুখ খুললেন ভারতের দক্ষিণী অভিনেত্রী পবিত্রা লোকেশ। এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাত্কারে পবিত্রা বলেন, বর্তমানে কাস্টিং কাউচ অত্যন্ত পরিচিত একটি শব্দ। তবে কে কীভাবে বিষয়টিকে গ্রহণ করছে, সেটি বড় বিষয়।

 

 

 

 

 

তিনি বলেন, কেউ যদি কখনও কাস্টিং কাউচের পাল্লায় পড়েন, তাহলে সেখান থেকে কীভাবে বেরিয়ে আসতে হবে, তা সবার আগে ভাবতে হবে। কেউ যদি ফাঁদে পড়েন, তাহলে তাহলে ফাঁদ কেটে বেরিয়ে আসতে হবে।

 

 

 

 

নিজের ইচ্ছে কেউ কিছু করলে অথবা কোনও কিছু পাওয়ার আশায় কেউ কিছু করলে, তাহলে সেখান থেকে বেরিয়ে আসা খুব কঠিন।

 

 

 

 

 

অভিনয় ছাড়া আরও অনেক উপায় আছে রোজগারের। কিন্তু, কেউ কাস্টিং কাউচের পাল্লায় পড়েও অভিনয় থেকে সরে আসতে না চান, তাহলে সেটা তাঁর একান্ত ব্যক্তিগত বিষয় বলেও মন্তব্য করেন দক্ষিণী অভিনেত্রী। পবিত্রা লোকেশের ওই মন্তব্য এরপরই ভাইরাল হয়ে যায় হু হু করে।

 

 

 

 

 

সম্প্রতি কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খোলেন শ্রী রেড্ডি। যেখানে তিনি রানা দাগগুবতির ভাই অভিরাম দাগগুবতি, পবন কল্যাণ, গায়ক শ্রীরাম নেনে-র মত একাধিক ব্যক্তির নাম তোলেন।

 

 

 

 

 

শুধু তাই নয়, দক্ষিণী সিনেমা জগতে কাস্টিং কাউচের পাল্লায় পড়েও অনেককে মুখ বন্ধ করে রাখতে হয় বলেও মন্তব্য করেন শ্রী রেড্ডি। যা নিয়ে গোটা টলিউড জুড়ে জোর তরজা শুরু হয়ে যায়।