প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     টিভি পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। মাঝখানে প্রায় চারমাস বিরতিতে ছিলেন, দেখা যায় নি নাটক কিংবা টেলিফিল্মে। জাজ মাল্টিমিডিয়ার একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন তিনি।

 

 

 

 

ছবিতে অভিনয়ের জন্য ফিটনেস থেকে শুরু করে নিজের মধ্য অনেকটাই পরিবর্তন নিয়ে আসেন তিনি। কিন্তু ব্যক্তিগত কারণে ছবিটি থেকে সরে যান তিনি। এখন বর্তমানে পরিবারকেই সময় দিচ্ছেন তিনি।

 

 

 

 

এদিকে কিছুদিন আগে চ্যানেল আই ডিজিটাল কনটেন্ট প্রয়াস ‘ওয়ানটেক কোয়েশ্চেন/আনসার’ এর শুটিংয়ে অংশ নেন তিনি। যার অর্থ দাড়ায় এক টেকে বিভিন্ন কড়ামিঠা প্রশ্নের উত্তর দেওয়া।

 

 

 

 

এখানে প্রশ্ন থাকে কোনটা ভালো লাগে বা কোনটা মন্দ সে বিষয়ে। তেমনি সাম্প্রতিক সময়ের কাজকর্ম, তারকা জীবনের নানা গসিপ নিয়েও থাকে প্রশ্ন। এক টেকের প্রশ্নে নেই এড়িয়ে যাওয়ার উপায়। উত্তর দিতে হয় অবধারিতভাবে।

 

 

 

 

 

এ বিষয়ে বাঁধন বলেন, ‘ওয়ানটেক কোয়েশ্চেন এন্ড আনসার’- ভিন্ন আয়োজনের একটি সাক্ষাৎকার যেখানে এক টেকে অনেকগুলো প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়। এর একটি পর্ব আগে দেখা ছিল। বেশ ভালো লেগেছে।

 

 

 

 

ভিন্নধর্মী যেকোন কাজই করতে ভালো লাগে। কারণ ভিন্নতার দিকে আমার আজন্ম আকর্ষণ। আর অনুষ্ঠানটির অভিজ্ঞতাও এত স্মুথ যা বলার বাইরে।’

 

 

 

 

এই ধরণের শোতে অনেক আচমকা প্রশ্ন থাকে! কিংবা বিব্রত কিছু মুহূর্ত বা কঠিন কিছু প্রশ্নও এসে পড়তে পারে- এমন আশংকা বোধ কাজ করেনি? ‘জীবনে এমন সব প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছি বিশেষ করে সংসার জীবনের ঘটনা প্রবাহ নিয়ে তাতে এখন আর কোন প্রশ্নকেই ভয় করি না।’ দৃঢ় কণ্ঠে জানান বাঁধন।

 

 

 

 

বর্তমান ব্যস্ততা প্রসঙ্গে বাঁধন বলেন, ‘চারমাস ধরে কোনো কাজ করছি না। এখন পরিবারকেই সময় দিচ্ছি। আগামী ঈদের বেশ কিছু নাটকে অংশ নিবো।

 

 

 

 

 

 

 

আর চলচ্চিত্রের জন্য পুরোপুরি প্রস্ততি নিয়েই শুরু করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু নিজের ব্যক্তিগত কিছু কাজের কারণে কাজটা আর করা হয় নি। তবে এখনো কথা চলছে অন্য একটা ছবির বিষয়ে, তবে এখনো কিছু ফাইনাল হয়নি।’

 

 

 

 

 

জেনারেশন মেগা ব্লাস্ট শো ‘ওয়ানটেক কোয়েশ্চান এন্ড আনসার’ এর নবম পর্ব চ্যানেল আইয়ের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে শনিবার রাত ১০টায় প্রচার করা হবে।