প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     কলকাতা বিমানবন্দরের রানওয়ের কাছাকাছি থাকা মসজিদটি অবিলম্বে সরিয়ে ফেলার দাবি জানিয়েছেন তসলিমা নাসরিন।

 

 

 

 

 

সম্প্রতি এক টুইটে তসলিমা দাবি করেন, কলকাতা বিমানবন্দরের রানওয়ের মাঝে মসজিদ থাকার কারণে বিমান উড়তে এবং অবতরণের ক্ষেত্রে সমস্যা হয়। এ কারণে মসজিদটি দ্রুত সরিয়ে ফেলা উচিত বলে তসলিমার দাবি।

 

 

 

 

 

তসলিমা নাসরিন অবশ্য টুইট শুরু করেছেন কলকাতার একাডেমি অব ফাইন আর্টসের সামনে থেকে দেবতাস্বরূপ সিঁদুর লাগানো পাথর সরিয়ে ফেলার বিষয়টি উল্লেখ করে।

 

 

 

 

কিছুদিন আগে একাডেমি অব ফাইন আর্টস চত্বরে একটি গাছের নিচে পাথরে সিঁদুর লাগিয়ে সেখানে পূজার্চনা শুরু হয়ে যায়। ভারতীয় পুলিশ পরে সেই পাথর সরিয়ে দেয়।

 

 

 

 

টুইটে তসলিমা লেখেন, কিছু মানুষ কয়েকটি পাথরের টুকরোর মধ্যে সিঁদুর মাখিয়ে তা একাডেমি অব ফাইন আর্টসের সামনের গাছের তলায় রেখেছিল। তাদের উদ্দেশ্য ছিল সেখানে একটা মন্দির নির্মাণ।

 

 

 

 

 

পুলিশ সেই পাথরের টুকরোগুলো সরিয়ে দেয়। কলকাতা বিমানবন্দরের রানওয়ের মাঝে যে মসজিদ রয়েছে পুলিশের সেটাও সরিয়ে দেয়া উচিত। ওই মসজিদের কারণে বিমান উড়তে এবং অবতরণের ক্ষেত্রে সমস্যা হয়।

 

 

 

 

 

একইভাবে রানওয়ের কাছে মসজিদ থাকার কারণে আরও অনেক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে বলেও দাবি করেছেন তসলিমা।