প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    চলন্ত বাসের পর এবার ভরা স্টেশন। ফের প্রকাশ্যে হস্তমৈথুনের ঘটনা। এবার ঘটনাস্থল ভারতের ব্যান্ডেল স্টেশন। সেখানেই মহিলাদের দেখে এই কাজ করছিল এক মধ্যবয়স্ক ব্যক্তি। ফেসবুক লাইভ করে সেই বিকৃতকামীকে সামনে আনলেন এক তরুণী।

 

 

 

 

 

জানা যাচ্ছে, রোববার হাওড়াগামী লোকাল যখন ব্যান্ডেল স্টেশনে দাঁড়ায় তখন মহিলাদের লক্ষ্য করে ওই মধ্যবয়স্ক ব্যক্তি কুৎসিত অঙ্গভঙ্গি করতে থাকে।

 

 

 

 

প্রথমে মহিলারা দেখেও কোনও প্রতিবাদ করেননি। এই সময় প্রকাশ্যেই হস্তমৈথুন শুরু করে মধ্য পঞ্চাশের ওই ব্যক্তি। তখনই এক তরুণী নিচে নেমে আসেন। ফেসবুক লাইভ শুরু করেন।

 

 

 

 

তারা জানাচ্ছেন, আজকাল সকলেই প্রমাণ চান। মুখের কথা কেউ বিশ্বাস করতে চান না। তাই একেবারে হাতেনাতে প্রমাণ দিতেই প্রযুক্তির দ্বারস্থ হন তিনি। ফেসবুক লাইভ করা শুরু করেন তিনি।

 

 

 

 

সে সময় রেল পুলিশ কাছাকাছিই ছিল। তরুণীকে ভিডিও করতে দেখে তারা এগিয়ে আসেন। অন্যান্য মহিলারাও সেই সময় প্রতিবাদ শুরু করেন। এরপরই পুলিশ ওই ব্যক্তিকে ধরতে যায়। কিন্তু কোনওক্রমে সে পালিয়ে যায়। চলন্ত ট্রেনে উঠে পড়ে। এরপর ওই ব্যক্তির আর হদিশ মেলেনি।

 

 

 

 

 

তবে পুলিশ জানাচ্ছে, ব্যক্তি মানসিক ভারসাম্যহীন। বর্ধমান জিআরপিকে পুরো বিষয়টি জানানো হয়েছে।

 

 

 

 

কিছুদিন আগেই চলন্ত বাসে তরুণীদের লক্ষ্য করে হস্তমৈথুন শুরু করেছিল এক মধ্যবয়স্ক ব্যক্তি। সেবারও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই এই ঘটনা সকলের সামনে তুলে আনেন দুই তরুণী।

 

 

 

 

 

ভাইরাল হয় ভিডিও। গোটা রাজ্যেই রীতিমতো প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। পরে ওই ব্যক্তিকে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।