প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:      অ্যালার্জির সমস্যার কারণে অনেকের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিঘ্নিত হয়। এর ফলে শরীর ও মন দুটোই বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষের জীবনযাপনের কিছু প্রবণতা অ্যালার্জির সমস্যা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে। আসুন সেই প্রবণতাগুলো জেনে নিই-

 

 

 

 

 

১. অনেকেই অ্যালার্জির কারণে অতিষ্ঠ হয়ে ফার্মেসি থেকে ওষুধ কিনে খান। কিন্তু ঠিক কি কারণে আপনার অ্যালার্জি হচ্ছে তা না জেনে ওষুধ খেলে উল্টো ক্ষতির আশঙ্কা। শুরুতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। পরীক্ষা করিয়ে আগে আপনার অ্যালার্জির ধরণ সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে নিন। এরপর সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে।

 

 

 

 

 

 

২. ঘরে যথেষ্ট আলো-বাতাস প্রবেশের জন্য অনেকেই জানালা হাট করে খুলে রাখেন। কিন্তু এর ফলে বিভিন্ন ফুলের পরাগরেণু বা ধুলোবালি ঢুকে পড়ে অ্যালার্জির সমস্যা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে।

 

 

 

 

 

৩. বিশেষ কিছু ফল বা সবজি খেলে অ্যালার্জির সমস্যা বেড়ে যায়। মুখে ও গলায় চুলকানি ও অস্বস্তি দেখা দেয়। এসব সবজি বা ফল কাটাকাটি করলে, ধুতে গেলে বা রান্না করতে গেলেও অ্যালার্জির সমস্যা বাড়তে পারে। কোন কোন খাবারে আপনার অ্যালার্জি বেড়ে যায়- এটা জানা থাকলে সেগুলো থেকে দূরে থাকুন।

 

 

 

 

৪. আপনার পোশাক, শরীর, চুল ও জুতায় লেগে অ্যালার্জি সৃষ্টিকারী ধুলো-বালি প্রতিনিয়তই ঘরে ঢুকছে। ঘরের পোষা প্রাণীর মাধ্যমেও দিনে বহুবার একই ঘটনা ঘটে।

 

 

 

 

 

এসব কারণে যতটা সম্ভব পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা ও উপযুক্ত সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। বাইরে থেকে এসে মাথার চুল ধুয়ে ফেলাটাও জরুরি। নয়তো চুলে লেগে থাকা ধুলাবালি বিছানা-বালিশে লেগে যায়। রাতভর সেই ধুলো লাগা বিছানা-বালিশে ঘুমালে অ্যালার্জির সমস্যা বেড়ে যেতে পারে।

 

 

 

 

 

 

৫. অনেকেই অ্যালার্জির সমস্যায় চিকিৎসকের দেওয়া নজেল স্প্রে ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এই স্প্রে ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিয়ম মেনে চলেন না। নজেল স্প্রে’র অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে নাকের ভেতরের অংশে এবং সাইনাসে মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।