প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    রোজার ঈদ উপলক্ষে পশ্চিমবঙ্গে মুক্তি পায় সুপারস্টার শাকিব খান অভিনীত ‘ভাইজান এলো রে’। প্রথম বাংলাদেশী নায়ক হিসেবে অন্য দেশের ঈদের বাজারে তিনি বেশ সাফল্য পান।

 

 

 

 

ভারতীয় গণমাধম সূত্রে জানা যায়, ‘ভাইজান এলো রে’ পশ্চিমবঙ্গে দারুণ দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে এবং ব্যবসার দিক দিয়েও ভালো করেছে। এবার সাফটা চুক্তিতে নিজের দেশেই আসতে চলেছেন ভাইজান শাকিব।

 

 

 

 

কথা ছিলো আগামী শুক্রবার তথা ২০ জুলাই বাংলাদেশে মুক্তি পাবে ‘ভাইজান এলো রে’। কিন্তু অপ্রত্যাশিত কারণে সেটা হচ্ছে না। আগামী ২৭ জুলাই নিজের দেশের প্রেক্ষাগৃহে আসবেন শাকিব। অর্থাৎ দর্শকমনে ‘ভাইজান’-এর জন্য অপেক্ষা বাড়লো।

 

 

 

 

 

‘ভাইজান এলো রে’ ছবির মুক্তি পেছানোর তথ্যটি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশে এর পরিবেশক এসকে মুভিজ ইন্টারন্যাশনাল। বুধবার (১৮ জুলাই) দুপুরে প্রতিষ্ঠানটি তাদের ফেসবুকের মাধ্যমে ‘ভাইজান’-এর মুক্তির চূড়ান্ত তারিখ জানিয়ে একটি পোস্ট দেয়।

 

 

 

 

সেখানে বলা হয়, অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতির জন্য বাংলাদেশে ‘ভাইজান এলো রে’ ২০ জুলাইয়ের পরিবর্তে আগামী ২৭ জুলাই মুক্তি পাবে।’ভাইজান এলো রে’ ছবির গানের দৃশ্যে শাকিব ও পায়েল

 

 

 

 

 

এদিকে গত সোমবার (১৬ জুলাই) রাতে ‘ভাইজান এলো রে’ বাংলাদেশ সেন্সর বোর্ড থেকে বিনা কর্তনে ছাড়পত্র লাভ করে। সেন্সর বোর্ড সদস্যদের কাছ থেকে ছবিটি ভূয়সী প্রশংসাও পায়। এর আগে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে ছবিটি মুক্তির জন্য অনুমোদন পায়।

 

 

 

 

 

 

‘ভাইজান এলো রে’ পরিচালনা করেছেন জয়দীপ মুখার্জি। এতে শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন শ্রাবন্তী ও পায়েল সরকার। এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে আরো আছেন দীপা খন্দকার, মনিরা মিঠু, রজতাভ দত্ত প্রমুখ। ছবিটি প্রযোজনা করেছে এসকে মুভিজ।