প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     সিলেট, রাজশাহী ও বরিশাল সিটি করপোরেশনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ হয়। এখন চলছে গণনা।

 

 

 

 

রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১৩৮ কেন্দ্রের মধ্য ৩২টির ফল পাওয়া গেছে। এরমধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৩৪,১৫৫ ভোট এবং বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ১৩,৮৮৯ ভোট।

 

 

 

 

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১৩৪ কেন্দ্রের মধ্য ৭টির ফল পাওয়া গেছে। এরমধ্যে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দীন আহম্মদ কামরান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৩,৯১০ ভোট এবং বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৪,০৫৯ ভোট।

 

 

 

 

 

 

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১২৩ কেন্দ্রের মধ্য ৬টির ফল পাওয়া গেছে। এরমধ্যে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৪,২০৮ ভোট এবং বিএনপির মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ার ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ১,৩৪৭ ভোট।

 

 

 

 

রাজশাহীতে মেয়র পদে পাঁচজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া ৩০টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ১৬০ জন ও ১০টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে আরও ৫২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

 

 

 

 

 

সিলেটে মেয়র পদে সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া ২৭টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ১২৬ জন ও নয়টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে আরও ৬২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

 

 

 

 

 

আর বরিশালে মেয়র পদে ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া ৩০টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৯৩ জন ও ১০টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে আরও ৩৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

 

 

 

 

 

১৩ জুন তিন সিটির তফসিল ঘোষণা করা হয়। ১০ জুলাই প্রচার শুরু করেন প্রার্থীরা।