প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       রাজধানীতে ডেঙ্গু জ্বরের আতঙ্ক বাড়ছে। সেই সঙ্গে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও। চলতি বছরে (জানুয়ারি থেকে জুলাই মাসের ২৭ তারিখ পর্যন্ত) ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন ৯৫৭ জন।

 

 

 

 

মারা গেছেন ৮ জন। জুন মাসের তুলনায় জুলাই মাসে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণেরও বেশি ছিল।

 

 

 

 

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের মাসওয়ারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী; জানুয়ারিতে ২৬ জন, ফেব্রæয়ারিতে ৭ জন, মার্চে ৫ জন, এপ্রিল ১৪, মে মাসে ৩৫, জুনে ২৬৭ ও জুলাই মাসের ২৭ তারিখ রাত ৮ টা পর্যন্ত ৬০৩ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন।

 

 

 

 

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার তথ্য অনুযায়ী, ২০০২ সালে সর্বোচ্চ ৬ হাজার ২৩২ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়। তবে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় ২০০০ সালে।

 

 

 

 

 

ওই বছর ৯৩ জনের মৃত্যু হয়। ২০১৬ সালে হঠাৎ করে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ৬ হাজার ৬০ জনে বৃদ্ধি পায়। সে বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় ১৪ জনের। ২০১৭ সালে আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৭৬৯ জন ও মৃতের সংখ্যা ৮ জন।

 

 

 

 

 

গত ৫০ দিনের ব্যবধানে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে যারা মারা গেছেন, তাদের মৃত্যুর প্রকৃত কারণ অনুসন্ধান করেছে রোগতত্ত¡, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।