প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:      বিয়ের পর স্বামী-স্ত্রীর মিলন একান্তই তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। কিন্তু বাগদত্তা এক জুটি চাইছেন ফুলশয্যার রাতে তাদের মিলনের মধুর মুহূর্তগুলি ধরা থাকুক ক্যামেরায়। এ জন্য ফটোগ্রাফারের জন্য পারিশ্রমিক ধরা হয়েছে প্রায় দুই লাখ টাকা।

 

 

 

 

সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে ইতালিতে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘মেট্রো’ তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২০১৬ সালে বাগদানের পর এ বছর বিয়ে করতে যাচ্ছেন ওই বাগদত্তা জুটি। আগামী সেপ্টেম্বরে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান।

 

 

 

 

 

তাদের ইচ্ছা ফুলশয্যার রাতে তাদের মিলন যেন হয় ক্যামেরার সামনে। কেননা বিয়ের পর তাদের প্রথম ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের ওই মুহুর্তটা সারাজীবন একে অপরের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে চান তারা।

 

 

 

 

 

মেট্রো জানিয়েছে, এই পরিকল্পনায় গত দুবছর ধরে তারা একজন ফটোগ্রাফার খুঁজেছেন। একটি বিজ্ঞাপনও দিয়েছেন তারা। হবু বর নাকি বলেছেন, ‘আমি ও আমার হবু স্ত্রী— দুজনেই বিশ্বাস করি, বিয়ের দিন কেবল একটা দিনেই সীমাবদ্ধ নয়, বিয়ের রাতটাও একই রকম গুরুত্বপূর্ণ।

 

 

 

 

 

স্বাভাবিক ভাবেই সমস্ত দিনের মুহূর্ত ধরে রাখার জন্য সবাই ফটোগ্রাফার ও ভিডিওগ্রাফার নিয়োগ করে। কিন্তু বিয়ের রাতের জন্য তেমন কোনো নিয়ম নেই।’

 

 

 

 

 

 

কিভাবে ছবি ও ভিডিও ধারণ করতে হবে তাও বলে দেওয়া হয়েছে বিজ্ঞাপনটিতে। জানানো হয়েছে, স্থির চিত্রের পাশাপাশি ভিডিও শটও নিতে হবে তাদের ঘনিষ্ট মুহূর্তের।

 

 

 

 

 

 

এটাও খেয়াল রাখতে হবে, যেন ঘরে পর্যাপ্ত আলোও থাকে।একটি নিষেধাজ্ঞাও আছে তাদের বিজ্ঞাপনে, বলা হয়েছে- ওই ভিডিও যেন অন্য কেউ দেখতে না পারে। এ জন্য ফটোগ্রাফারের সম্মানি ধরা হয়েছে প্রায় দুই লাখ টাকা।