প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাত দিন ধরে ধৈর্য ধরেছি, পুলিশকে অপমান করা হয়েছে।তিনি বলেন, রাস্তায় দাঁড়িয়ে আওয়ামী লীগ অফিসের দিকে গোলাগুলি করতে করতে আসবে, তাদের বল প্রয়োগ করবে না; চুমু খাবে।

 

 

 

 

 

রোববার সকালে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ কথা বলেন।নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে বিএনপি ‘ভর’ করেছে বলে অভিযোগ করেন ওবায়দুল কাদের।

 

 

 

 

 

 

তিনি বলেন, বিএনপি নিরাপদ সড়কের আন্দোলনকে নিরাপদ ক্ষমতার পথ হিসেবে ব্যবহার করতে চায়। সেই এজেন্ডা নিয়ে এরা এগিয়ে যাচ্ছে।এ সময় সেতুমন্ত্রী গতকাল শনিবার শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে ‘হামলা’র সমালোচনা করেন।

 

 

 

 

 

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বাসের চাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী নিহত হন। এ ছাড়া আহত হন বেশ কয়েকজন।

 

 

 

 

 

নিহতরা হলেন- শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী দিয়া খানম মীম ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম রাজীব।এ ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তায় বিক্ষোভে ফেটে পড়েন শিক্ষার্থীরা।

 

 

 

 

 

 

এর পর থেকে ঢাকার অভ্যন্তরীণ সড়কগুলোয় বাস চলাচল একেবারেই কমে যায়। এমনকি আন্তঃজেলা বাস চলাচলও বন্ধ হয়ে যায়।আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা নয়টি দাবি করেছেন।

 

 

 

 

 

 

 

তাদের সব দাবি মেনে নেয়ার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।এ অবস্থার মধ্যেই গতকাল রাজধানীর ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে হামলা করা হয় বলে বিকালে এক সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।