প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       ছাত্রলীগের এক নেতার ফেসবুক স্ট্যাটাসে কমেন্ট করে গ্রেপ্তার হয়েছেন দুই শিক্ষার্থী। পরে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়ে।

 

 

 

 

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র জোবায়ের হোসাইন ও ইমতিয়াজ আহমেদ ফাহিম। তাদের ছাত্রশিবিরের সমর্থক বলে দাবি করেছেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

 

 

 

 

 

এদিকে রোববার একটি নাশকতার মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ওই দুই শিক্ষার্থীকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে বলে পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

 

 

 

 

 

 

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাহফুজুর রহমান তপু মতিহার থানায় দেয়া তার অভিযোগে বলেন, শনিবার রাতে রুয়েট শিক্ষার্থীদের ফেসবুক গ্রুপ ‘রুয়েট কমন রুম’ -এ চলমান আন্দোলনে গুজবের বিরুদ্ধে একটি পোস্ট দেন তিনি।

 

 

 

 

ওই পোস্টের নিচে জোবায়ের হোসাইন লিখেন ‘থু থু দিলাম তোদের মুখে’। এরপর জোবায়েরকে রাতেই আটক করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা পুলিশে সোপর্দ করেন।

 

 

 

 

 

ছাত্রলীগ নেতাদের দাবি, ওই শিক্ষার্থীর মোবাইল চেক করে তপুকে হত্যা পরিকল্পনার তথ্য তারা পেয়েছেন। এ ব্যাপারে তারা পুলিশকেও জানিয়েছেন।

 

 

 

 

 

একই অভিযোগে ইমতিয়াজ আহমেদ ফাহিম নামের একই বিভাগের আরেক ছাত্রকে আটকের পর গ্রেপ্তার করা হয়।

 

 

 

 

 

 

মতিহার থানার ওসি শাহাদৎ হোসেন জানান, দুই শিক্ষার্থীর মোবাইল চেক করে ও ঘটনার প্রাথমিক তদন্তের পর দুই শিক্ষার্থীকে নাশকতার একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।