প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       ধানমন্ডির আওয়ামী লীগের অফিসে হামলার প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে মুখ ফসকে চুমুর কথা বের হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

 

 

 

 

রোববার (৫ আগস্ট) বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আসার পর সকালের বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

 

 

 

 

 

রোববার সকালে নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে শনিবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে হামলার প্রসঙ্গে তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেছিলেন, ‘এখন আপনি রাস্তায় দাঁড়িয়ে আওয়ামী লীগ অফিসের দিকে গোলাগুলি করতে করতে আসবেন, তাদের কে কি বল প্রয়োগ করবে না? চুমু খাবে?’

 

 

 

 

 

রোববার বিকেলে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ অফিসে হামলা করলে আমরা কি চুমু খাব, এ বক্তব্যে কেউ কষ্ট পেলে দুঃখপ্রকাশ করছি। এ বক্তব্য মুখ ফসকে বের হয়ে গিয়েছে। রাজনীতিতে এ ধরনের শব্দ ব্যবহারও হয়, কিন্তু কেউ আমার কাছে আশা করে নাই।’

 

 

 

 

 

‘গুজব’ ছড়ানোর পর শিক্ষার্থীরা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের দিকে এগিয়ে গেলে জিগাতলায় শনিবার ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছিল। হেলমেট পরা বিভিন্ন বয়সী দুর্বৃত্তরা দা, লাঠি, রড এমনকী আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হামলে পড়ে শিক্ষার্থীদের ওপর।

 

 

 

 

 

 

আজ রোববারও সেই জিগাতলাতেই আবারও হামলার শিকার হন শিক্ষার্থীরা। এই হামলায় তাদের দলীয় নেতাকর্মীরা জড়িত কিনা এ প্রসঙ্গে কাদের বলেন, ‘যদি কেউ প্রমাণ দিতে পারে, তাহলে আমরা অবশ্যই ব্যবস্থা নেব।’