প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:      ছবির শুটিংয়ের সময় অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। কিন্তু শুটিংয়ের সময় তা একেবারেই বুঝতে দেননি এই বলিউড অভিনেত্রী-পরিচালকরা। দেদার কাজ করেছেন তারা। ছবিগুলোও বক্স অফিসে সাড়া ফেলে ব্যবসায়িক সফল হয়েছে।

 

 

 

 

ফারাহ খান: ‘ওম শান্তি ওম’ ছবিটি যেমন নাচে-গানে ভরপুর, তেমন সুপারহিট। ছবিটির পরিচালক ফারাহ খান।ছিলেন কোরিওগ্রাফারও। ছবিটির শুটিংয়ের সময় ‘ট্রিপলেট’ সন্তান ধারণ করেছিলেন ফরহা।

 

 

 

 

 

কাজল: ‘উই আর ফ্যামিলি’ ছবির শুটিংয়ের সময় অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন কাজল। ছবিটিতে দারুণ পারফরম্যান্স ছিল কাজলের।ছবির প্রচারেও নিয়মিত গিয়েছিলেন এ নায়িকা।

 

 

 

 

 

কারিনা কাপুর: ‘ভিরে দি ওয়েডিং’ ছবির শুটিং চলাকালীন অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন কারিনা। চুটিয়ে শুটিং করেছেন। ছবিটিও দর্শকমহলে ভালোই সাড়া ফেলে। বেবি বাম্প নিয়ে র‌্যাম্পেও হেঁটেছিলেন সাইফপত্নী। এরপর জন্ম নেয় তৈমুর।

 

 

 

 

 

জুহি চাওলা: ‘আমদানি আঠঠানি খরচা রুপাইয়া’ ছবির শুটিং চলাকালীন অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন জুহি। গোবিন্দর বিপরীতে তার এই ছবিটি অসম্ভব জনপ্রিয় হয়েছিল। দ্বিতীয় সন্তান হওয়ার সময় ‘ঝঙ্কার বিটস’ ছবির শুটিং চলছিল। সেই সময় সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন জুহি।ছবিটি ব্যাপক প্রশংসা পায়।

 

 

 

 

 

হেমা মালিনী: ‘রাজিয়া সুলতান’ ছবির শুটিং চলাকালীন অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন হেমা। দিব্যি শুটিং চালিয়ে যান তিনি। তারপর মেয়ে এষার জন্ম হয়। ছবিটিতে হেমার অভিনয় রীতিমতো প্রশংসিত হয়েছিল।

 

 

 

 

 

 

জয়া বচ্চন: ‘শোলে’ ছবির শুটিং চলাকালীন অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন জয়া। এরপরই প্রথম সন্তান শ্বেতার জন্ম হয়। শোলে ছবিতে জয়ার চরিত্র বিপুল সাড়া ফেলেছিল।