প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:         নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন চলাকালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ছাত্রদেরকে হত্যা ও ধর্ষণের ‘গুজব ছড়ানো’ সাতশ ফেসবুক আইডি শনাক্ত করেছে ছাত্রলীগ।

 

 

 

 

আওয়ামী লীগের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী এ বিষয়ে বলেন, ‘শনাক্ত হওয়া এসব আইডি যারা চালায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানিয়েছি।’

 

 

 

 

 

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সন্ত্রাস বিরোধী’ সমাবশে তিনি এ কথা বলেন। অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে ছাত্রলীগ এ সমাবেশের আয়োজন করে। এতে ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ শাখার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

 

 

নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্রদের আন্দোলনের মধ্যে গত ৫ আগস্ট ফেসবুক লাইভ ও ভিডিও ছাড়া হয়। যেখানে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হত্যা-ধর্ষণ, চোখ তুলে ফেলার মতো ঘটনা ঘটেছে বলে গুজব ছড়ানো হয়। ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ছাত্রলীগকে সন্ত্রাসী সংগঠন বানানোর অপচেষ্টা যারা চালিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

 

 

 

 

যখনই দেশের সাধারণ শিক্ষার্থীরা কোনো আন্দোলনে যায়, জামায়াত-শিবির ও ছাত্রদল তাদের বিভ্রান্ত করে ফায়দা লুটতে চায় বলেও সতর্ক করেন রাব্বানী। তিনি বলেন, ‘আমরা এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে এখানে এসেছি।’

 

 

 

 

 

গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চোধুরী ও গণফোরাম নেতা ড. কামাল হোসেনের প্রত্যক্ষ মদদে কোটা আন্দোলনের মতো নিরাপদ সড়ক আন্দোলনকে বিএনপি ব্যবহারের চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদকের।

 

 

 

 

 

তিনি বলেন, ‘জামায়াত-শিবির কোটা আন্দোলনের মতো লন্ডনের নতুন হাওয়া ভবন থেকে দেওয়া অর্থে ড. কামাল, জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ বিএনপি-জামাতপন্থী সুশীলদের প্রত্যক্ষ মদদে শিক্ষার্থীদের এ যৌক্তিক আন্দোলনকে ভণ্ডুলের চেষ্টা করেছে। তবে তারা ব্যর্থ হয়েছে।’

 

 

 

 

 

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা সরকারের কাছে নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতসহ নয় দফা দাবি জানায়। তবে প্রধানমন্ত্রী যেহেতু প্রত্যাশার চেয়ে বেশি দেন, তাই তিনি নয় দফার জায়গায় ১১ দফা মেনে নিলেন। এসব দাবি মেনে নেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এরইমধ্যে বাস্তবায়নের কাজ শুরু হয়ে গেছে।’

 

 

 

 

 

 

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারম্যান বেগম খালেদা জিয়া যদি ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুবার্ষিকীতে বাংলাদেশের কোনো জায়গায় ভুয়া জন্মদিন পালন করে, তবে আপনারা তা প্রতিহত করবেন।

 

 

 

 

আমরা হুঁশিয়ারি দিচ্ছি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কোনো নেতাকর্মী থাকতে বিএনপি ও তার অঙ্গসংগঠন এবং খালেদা জিয়াকে জন্মদিন পালন করতে দেওয়া হবে না।’

 

 

 

 

 

সমাবেশে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতৃত্ব দানকারী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে আজকে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করতে বিভিন্নভাবে অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে আমাদের আজকের এ ছাত্র সমাবেশ।’