প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       বন্ধুকে পিঠে নিয়ে সাঁতার কেটে পানিতে ডুবার হাত থেকে বাঁচাতে চেয়েছিল অপর বন্ধু। কিন্তু না পেরে বন্ধুসহ ডুবেই গেল সে। মারা গেছে দুজনই। রোববার বিকেলে ঢাকার রমনা পার্কের লেকে এই ঘটনা ঘটে।

 

 

 

 

মারা যাওয়া ওই দুই বন্ধু হলো আদনান ও মাহফুজ। তাঁরা উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। আদনানের বাড়ি মগবাজার গুলবাগ এলাকায়। আর মাহফুজের বাড়ি কোথায় তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

 

 

 

 

আদনান ও মাহফুজের বন্ধু আরিফ হোসেন বলেন, স্কুল ফাঁকি দিয়ে তাঁরা তিন বন্ধু মিলে রমনা পার্কে ফুটবল খেলে। খেলা শেষে পার্কের লেকে তিন জনই গোসল করতে নামে। মাহফুজ সাঁতার জানে, কিন্তু আদনান সাঁতার পারে না।

 

 

 

 

গোসলের একপর্যায়ে লেকের এপার থেকে ওপারে যাওয়ার উদ্দেশে মাহফুজ বন্ধু আদনানকে পিঠে নিয়ে সাঁতার দেয়। মাঝপথে গিয়ে মাহফুজ আর সাঁতার কাটতে পারছিল না। এ সময় আদনানও মাহফুজের গলা ছাড়ছিল না। ফলে দুজনেই পানিতে ডুবে যায়।

 

 

 

 

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে দুজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

 

 

 

 

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া বলেন, মৃত ওই দুই শিক্ষার্থীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে নেওয়া হয়েছে। দুজনের পরিবার সদস্যদের পরিচয় বের করার চেষ্টা চলছে।