প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:        মন্ত্রিসভা কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ সনদকে সাধারণ শিক্ষার স্নাতকোত্তর মাস্টার্স ডিগ্রির সমমান করে স্বীকৃতি দিতে আইনের খসড়া অনুমোদন দিয়েছে।

 

 

 

 

সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘কওমি মাদ্রাসাসমূহের দাওয়ায়ে হাদিস (তাকমিল) এর সনদকে মাস্টার্স ডিগ্রি (ইসলামিক স্টাডিজ ও আরবি) সমমান প্রদান আইন, ২০১৮’-এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়।

 

 

 

 

 

সচিবালয়ে এক ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বিষয়টি জানান। তিনি বলেন, আগে থেকেই হয়ে (কওমি সনদের স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে) আসছে।

 

 

 

 

সেটাকে এবার আইনি কাঠামোতে নিয়ে আসা হচ্ছে। সারা দেশে ছয়টি বোর্ড কওমি মাদ্রাসাগুলো নিয়ন্ত্রণ করছে জানিয়ে শফিউল বলেন, তাদের নিয়ে কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড করা হবে।

 

 

 

 

 

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ১১ এপ্রিল কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ সনদকে সাধারণ শিক্ষার স্নাতকোত্তর ডিগ্রির স্বীকৃতি দেয়ার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

 

 

 

ব্যাপক সমালোচনার মধ্যে এর দুই দিন পর কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ সনদকে সাধারণ শিক্ষার স্নাতকোত্তর ডিগ্রির স্বীকৃতি দিয়ে আদেশ জারি করে সরকার।

 

 

 

 

 

এ বিষয়ে নতুন আইন পাস হওয়ার আগেই গত মার্চে ১ হাজার ১০ জন কওমি আলেমকে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম (ষষ্ঠ পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় সরকারি চাকরিতে নিয়োগ দেয় সরকার।