প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:        বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা দুর্নীতির ঘটনায় খনির সাবেক ও বর্তমান আট কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

 

 

 

 

রোববার দুদক উপ-পরিচালক সামছুল আলম স্বাক্ষরিত পৃথক চিঠিতে তাদেরকে সোমবার ও মঙ্গলবার দুদকে আসতে বলা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য।

 

 

 

 

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ও দুদকের উপ-পরিচালক শামসুল আলম নেতৃত্বে সহকারী পরিচালক এএসএম সাজ্জাদ হোসেন ও উপসহকারী পরিচালক এএসএম তাজুল ইসলাম তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে।

 

 

 

 

 

সোমবার যাদের তলব করা হয়েছে তারা হলেন, খনির সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাহবুবুর রহমান, সাবেক মহাব্যবস্থাপক মীর আব্দুল মতিন, মহাব্যবস্থাপক (সারফেস অপরেশন) মো. সাইফুল ইসলাম সরকার।

 

 

 

 

 

মঙ্গলবার তলব করা হয়েছে সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী খুরশীদুল হাসান, সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী কামরুজ্জামান, সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমিনুজ্জামান ও সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান।

 

 

 

 

 

কয়লা আত্মসাতের ঘটনায় ২৪ জুলাই বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মোহাম্মদ আনিছুর রহমান বাদী হয়ে মামলা করেন যা পরবর্তীতে দুদক তদন্ত শুরু করে।

 

 

 

 

 

 

অভিযোগের সংক্ষিপ্ত বিবরণীতে বলা হয়, পরস্পর যোগসাজশে অপরাধজনক বিশ্বাস ভঙ্গ করে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৬৪৪ মেট্রিক টন কয়লা আত্মসাৎ করে, যার অনুমানিক মূল্য ২৩০ কোটি টাকা।