প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:      অবশেষে মরণঘাতি এইচআইভি এইডস নিয়ন্ত্রণে একটি দীর্ঘমেয়াদী ইনজেকশন আবিষ্কার করেছে ব্রিটিশ ঔষধ কোম্পানি গ্লাসকোস্মিথকাইন।

 

 

 

 

এই ইনজেকশন মুখে খাওয়ার ঔষধের চাইতে অধিক কার্যকর। এই আবিষ্কার কোম্পানিটির ব্যবসাকে আরো সম্প্রসারিত করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

 

 

 

 

গ্লাসকোর মালিকানাধীন ভিআইভাইভ হেলথকেয়ার ইউনিট বুধবার জানিয়েছে, পরীক্ষামূলক এই টু ড্রাগ ইনজেকশনদ্বয়ের নাম রিলপিভিরিন কাবোতেগরাভির। ৪৮ মাসের ক্লিনিকাল পরীক্ষণের পর এই ইনজেকশনদ্বয়কে মুখে খাবার ঔষধের চাইতে অধিক কার্যকর বলে প্রমাণ করা সম্ভবপর হয়েছে।

 

 

 

 

বিগ ফেস-৩ নামক এই গবেষণার এই ফলাফল গ্লাসকোর দুই থেরাপি উদ্দেশ্যকে স্বার্থক করবে। কোম্পানিটি অনেক বছর ধরেই দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসার ক্ষেত্রে এই পদ্ধতি প্রয়োগের চেষ্টা করছে। এর ফলে আর পূর্বতর ত্রিপল ডোজের প্রয়োজন থাকবে না। এই খবর প্রকাশের পর গ্লাস্কোর শেয়ার দর ১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

 

 

 

 

 

গ্লাসকো আশা করছে তাদের এই সফলতা মার্কিন ঔষধ নির্মাতা জিলেড সায়েন্স এর সাথে প্রতিযোগিতার সক্ষমতা বৃদ্ধি করবে। জিলেড বিশ্বের ২৬০০ কোটি ডলারের এইচআইভি’র ঔষধ বাজার নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

 

 

 

বাজারের ৫২ শতাংশই বর্তমানে তাদের দখলে আছে। অপরদিকে গ্লাসকোর দখলে রয়েছে ২২ শতাংম। গ্লাসকোস্মিথকাইনের এইচআইভি ইউনিটের প্রধান ডেব্রাহ ওয়াটাহাউজ আশা প্রকাশ করেছেন, তারা ২০২০ সালের মধ্যেই নিজেদের মার্কিন প্রতিদ্বন্দীদের ছাড়িয়ে যাবেন।