প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       ‘হ্যান্ডশেক’ মামলায় জিতে গেছেন সুইডেনে বসবাসকৃত মুসলীম তরুণী ফারাহ্ আলহাজেহ্।

 

 

 

 

চলতি বছর ফারাহ্ একটি সুইডিশ প্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্য আবেদন করেন। চাকরির ইন্টারভিউয়ের জন্য কর্তৃপক্ষ তাকে ডাকলে তিনি ধর্মীয় কারণে উপস্থিত কর্মকর্তাদের সাথে হাত মেলাতে অপারগতা প্রকাশ করেন ও এর বদলে তিনি বুকে হাত রেখে তাদের প্রতি শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন।

 

 

 

 

 

কিন্তু হ্যান্ডশেক না করায় কর্তৃপক্ষ তার ইন্টারভিউটি বাতিল ঘোষণা করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে ফারাহ্ দেশটির শ্রম আদালতে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

 

 

 

 

সুইডেনে’র শ্রম আদালত মামলাটিতে ফারাহ্’র পক্ষে রায় প্রদান করে। মামলার রায়ে আদালত জানায়, প্রতিষ্ঠানটি ফারাহ্’র প্রতি ধর্মীয় বৈসম্যমূলক আচরন করেছে।

 

 

 

 

 

এ অপরাধের কারণে আদালত অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানটিকে ৪ হাজার ৩৫০ ডলার জরিমানা ধার্য করে। এ রায় প্রসঙ্গে মামলার বাদী ফারাহ্ জানান, তিনি কোনও ধরনের অর্থ প্রাপ্তির জন্য অভিযোগ দায়ের করেননি। তিনি অভিযোগ দায়ের করেছেন কারন, তিনি বিশ্বাস করেন যে তিনি কোনও ভূল কাজ করেননি ও তিনি অন্যায়ের শিকার হয়েছেন।

 

 

 

 

 

তিনি আরও বলেন, তিনি আশা করেন এ রকম পরিস্থীতির শিকার অন্যান্য নারীরাও এ সুবিচারের ফলে আশা ফিরে পাবেন।