প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:      ‘সুন্দরী নারী ভূতের’ উপদ্রবে ঘরছাড়া গ্রামের ৬০টি পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তেলেঙ্গানার নির্মল জেলার কাশীগুরা গ্রামে। বাকি বাড়িগুলি থেকেও পুরুষ সদস্যরা পলাতক। কারণ, সেই ভূতের মূল আকর্ষণ নাকি গ্রামের পুরুষরাই।

 

 

 

 

 

জানা গেছে, গ্রামের অধিকাংশ পরিবারই নদীর কাছে পাথর ভাঙার কাজ করে। আর তার মাধ্যমেই জীবিকা নির্বাহ করে। কিন্তু, তাদের অভিযোগ গত কয়েক মাস ধরে এক নারী ভূত তাদের আক্রমণ করে চলেছে। বিশেষ করে গ্রামের পুরুষ সদস্যদের প্রতি আক্রমণের প্রবণতাই আতঙ্কের কারণ সেই গ্রামে।

 

 

 

 

 

গ্রামের এক বাসিন্দার দাবি, ‘মানুষের বেশে প্রথমে আর্বিভাব হচ্ছে সেই ভূতের। তারপরই নিজের রূপ ধারণ করছে সে। ‘

 

 

 

 

 

 

নির্মল জেলার পুলিশ জানিয়েছে, ভূতের ভয় এই এলাকায় নতুন কিছু নয়। মাঝে মধ্যেই এই ধরনের খবর পাওয়া যায়। তারপর নানাভাবে বুঝিয়ে ভয় কাটিয়ে বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করতে হয়। এবারও তেমনই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।