প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     আসছে একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে ঈদুল আযহা উপলক্ষে আওয়ামী লীগের নেতারা যার যার নির্বাচনী এলাকায় ঈদ আমেজ বজায় রেখে, নির্বাচনী এলাকার জনগণের সাথে ঈদ কাটিয়ে নির্বাচনী প্রচারণার একটি অংশ সেরে নিবেন।

 

 

 

 

 

দলটির উচ্চ পর্যায়ের থেকে শুরু করে নেতাদের কেউ থাকছেন ঢাকায় আবার কেউ যাচ্ছেন যার যার নির্বাচনি এলাকায়। আবার অনেকেই ঈদের প্রথম প্রহর ঢাকায় কাটিয়ে বিকালে রওনা হবেন গ্রামের বাড়িতে,আবার কেউ কেউ গ্রামের বাড়িতে ঈদের প্রথম প্রহর ঢাকায় কাটিয়ে বিকালে ফিরবেন ঢাকায়।

 

 

 

 

 

কোরবাণীর পশুর ক্ষেতে আছে ভেদাভেদ কেউ কেউ কিনেছেন একাধিক পশু আবার কেউ কেউ কিনেছেন গ্রামে ও ঢাকায় জন্য আলাদা করে। ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে। তবে যত আয়োজন সবকিছুই নির্বাচনকে ঘিরে বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

 

 

 

 

আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিবারের মতো এবারও ঈদ করবেন ঢাকায়। সকালে তিনি গণভবনে দলের নেতাকর্মীসহ জনসাধারণের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে যাবেন নোয়াখালী তার নির্বাচনী এলাকায়।

 

 

 

 

 

 

 

উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্যদের মধ্যে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সিলেট, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু ঢাকায়, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ভোলায় ঈদ করবেন।

 

 

 

 

 

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাজেদা চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, চেীদ্দ দলের মূখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় করে তার নির্বাচনী এলাকা সিরাজগঞ্জ যাবেন, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, কাজী জাফরউল্লাহ, কর্নেল (অব.) ফারুক খান, ড. আবদুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ ঈদ করবেন ঢাকায়।

 

 

 

 

 

 

সরকারি দলের মন্ত্রীরা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে নির্বাচনী এলাকা কেরানীগঞ্জে থাকবেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক গাজীপুর, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ঢাকা, পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল কুমিল্লায়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক নাটোরে ঈদ করবেন।

 

 

 

 

 

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি চট্টগ্রাম, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর নীলফামারী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ঢাকায়, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সিলেট, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া চাঁদপুর, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মির্জা আজম জামালপুরে ঈদ করবেন।

 

 

 

 

 

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম রাজশাহী, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম হিরু নরসিংদী। দলের সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে আহমদ হোসেন নেত্রকোনা, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ সিলেট, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম মাদারীপুর, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন জয়পুরহাট, বিএম মোজাম্মেল ভূইয়া ঢাকায় পরের দিন শরীযতপুরে যাবেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী দিনাজপুরে ঈদ করবেন। এনামূল হক শামীম ঢাকায় পরে দিন নির্বাচনী এলাকায় শরীয়তপুর-২ যাবেন।

 

 

 

 

 

এছাড়া প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ চট্টগ্রাম, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ মাদারীপুর, শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ এবং বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নিজ জেলা মাদারীপুরে।