প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:       শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ায় সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার নভজিত সিং সিধুকে শান্তির দূত আখ্যা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

 

 

 

 

পাকিস্তানি জেনারেলকে আলিঙ্গন করে ভারতের সমালোচনার মুখোমুখি থাকা সিধুকে নিয়ে মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, পাকিস্তানে শপথ অনুষ্ঠানে আসায় আমি সিধুকে ধন্যবাদ দিতে চাই।

 

 

 

 

 

এর পর সিধুর সমালোচনাকারীদেরও একহাত দিতে ছাড়েন নি পাকিস্তানের নয়া প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ভারতে যারা সিধুকে সমালোচনার লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছেন, তারা উপমহাদেশে শান্তির জন্য ক্ষতিকর। কারণ শান্তি ছাড়া আমাদের জনগণ কখনো উন্নতি করতে পারবে না।

 

 

 

 

 

ইমরান খানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে দেশটির সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়াকে জড়িয়ে ধরে বিপাকে পড়তে হয়েছে ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান রাজনীতিবিদ নভজোত সিং সিধুকে।

 

 

 

 

ইমরান খানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে ভারত থেকে অতিথি ছিলেন সিধু। পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট বাসভবনে সেই অনুষ্ঠানে দেখা যায়, বাজওয়া নিজে এগিয়ে এসে সিধুকে জড়িয়ে ধরেন। ওই সময় হাসিমুখে তাদের বেশ কিছু কথাবার্তা আদানপ্রদান হয়।

 

 

 

 

 

সেই ছবি সামনে আসার পর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে। একের পর আক্রমণের শিকার হচ্ছেন সিধু। অনেকেই মন্তব্য করেছেন, চিরশত্রু রাষ্ট্রের সেনাপ্রধানের সঙ্গে গলাগলি করে কাজটা মোটেই ভালো করেননি তিনি।

 

 

 

 

হরিয়ানার বিজেপি সরকারের ক্যাবিনেট মন্ত্রী অনিল ভিজ আরেক কাঠি সরস, পাকিস্তান সেনাপ্রধানকে জড়িয়ে ধরে সিধু নিজের দেশের সঙ্গে বেঈমানি করেছেন।

 

 

 

 

 

কেউ কেউ বলছেন, সম্প্রতি মারা গেছেন ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী। তার মৃত্যুতে সাত দিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালন করছে ভারতবাসী। এ অবস্থায় তার সেই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া উচিত হয়নি।