প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:      একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনই নিজের শেষ নির্বাচন জানিয়ে রংপুরসহ দেশবাসীর কাছে ভোট চেয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ।

 

 

 

 

আজ বুধবার রংপুর কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। নামাজের আগে সমবেত মুসল্লিদের উদ্দেশে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতাকালে নিজ নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের কাছে এই আহ্বান জানান এরশাদ।

 

 

 

 

 

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন,‘এটাই আমার জীবনের শেষ নির্বাচন, তাই শেষ বারের মতো রংপুরের জনগণের সেবা করে মরতে চাই।’

 

 

 

 

 

 

এরশাদ আরও বলেন, ‘আমি কোনো দিন রংপুরের মানুষের ঋণ শোধ করতে পারব না। তারা আমাকে পাঁচটি আসনে দুবার এবং বার বার রংপুর সদর আসনে বিপুল ভোটে জয়ী করেছে। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে আর একবার জনগণের সেবা করার সুযোগ চাই।’

 

 

 

 

 

একাদশ নির্বাচনে এরশাদ রংপুর সদর ৩ আসন থেকে অংশ নেবেন বলে ঘোষণা দেন।

 

 

 

 

 

নামাজ আদায় শেষে নগরীর পল্লী নিবাস বাসভবনে দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এরশাদ। পরে নিজ বাড়ির সামনে গরু কোরবানি দেন জাপা চেয়ারম্যান। কোরবানির পরে নিজ এলাকার দুস্থদের মাঝে মাংস বিতরণ করেন তিনি।

 

 

 

 

জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক এরশাদের কোরবানি দেওয়ার বিষয়টি জানিয়ে বলেছেন, ‘স্যার নয়টি গরু কোরবানি করেছেন। পরে তিনি ও দলের অন্যান্য নেতাকর্মীরা কোরবানির মাংস এলাকার দুস্থদের মাঝে বিতরণ করেন।’

 

 

 

 

 

 

ঈদের নামাজে রংপুর সিটি মেয়র ও মহানগর জাপার সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, বিভাগীয় কমিশনার কাজী হাসান আহাম্মেদ, প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক দলের নেতারাসহ হাজার হাজার মানুষ অংশ নেন।