প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    কোরবানির ঈদের আমেজ এখনও শেষ হয়নি। দেশের অন্য আট-দশটি প্রতিষ্ঠানের মতো তাই বাংলাদেশ ক্রি‌কেট বোর্ডেও (বিসিবি) শনিবার (২৫ আগস্ট) সেই আমেজের রেশ চোখ এড়িয়ে গেল না। ক্রি‌কেটার, বোর্ড কর্মকর্তা-কর্মচারী, কোচ, সাংবাদিক ও ফিজিওদের পদচারণায় সদা সরব এ জায়গাটির প্রতিটি কোণ থেকেই সুনশান নীরবতায় যেন সেই আমেজই আছড়ে পড়ছিলো।

 

 

 

 

 

মিরপুর শের-ই বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ক্রি‌কেট একাডেমি ও মূল ফটকের জনা কয়েক নিরাপত্তাকর্মী ছাড়া আর কারও পদচারণাই দৃষ্টিগোচর হয়নি। হঠাতই দেখা গেল নীরবতা ভেঙে কালো রঙের প্র্যাডো নিয়ে কেউ একজন হোম অব ক্রি‌কেটে ঢুকছেন। গাড়ি দেখে বুঝতে বাকি রইলো না তিনি তামিম ইকবাল।

 

 

 

 

 

 

পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটি কাটিয়ে শুক্রবার (২৪ আগস্ট) রাতে ঢাকা ফিরেছেন এ টাইগার ওপেনার। সতীর্থরা যখন কোরবানির গরুর মাংসের হরেক রকমের স্বাদ নিতে এখনও নিজ নিজ বাড়িতে, ঠিক তখনই তিনি কর্মস্থলে!

 

 

 

 

প্রিয় মেন্টর মোহাম্মদ সালাহউদ্দীনের সঙ্গে অনুশীলনে তামিম ইকবাল।  ঢাকা ফিরে আর অপেক্ষা করেননি। ব্যাট-প্যাড পরে পরদিনই নেমে গেলেন একাডেমি মাঠের নেটে। সঙ্গে ছিলেন সবসময়ের প্রিয় মেন্টর মোহাম্মদ সালাহউদ্দীন। মেন্টরের নির্দেশনায় মেশিনের বলে চললো তার ব্যাটিং অনুশীলন। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চলা এ অনুশীলনে বেশ সপ্রতিভ ব্যাট চালিয়েছেন তিনি। যার বেশিরভাগই ছিল ফ্রন্টফুট কাভার ড্রাইভ। কখনও তা গিয়েছে মাটি কামড়ে কখনও বা আকাশ সমান উচ্চতায়।

 

 

 

 

 

 

খেলেলেন ফ্লিক শটসও। ফ্লিক খেলতে গিয়ে একপর্যায়ে পায়ে ব্যথা পেলেন। তীব্রতা খুব একটা বেশি ছিল না। তাই মিনিট বিশেকের বিশ্রাম নিয়ে আবার ব্যাটিংয়ে নেমে দাপুটে ব্যাটের আওয়াজে কাঁপিয়ে তুললেন নীরব হোম অব ক্রি‌কেট।

 

 

 

 

 

বলার অপেক্ষা রাখে না সময়টা বেশ ভালই যাচ্ছে তামিমের। সদ্য সমাপ্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের ওয়ানডে সিরিজে নান্দনিক ব্যাটে দু’টো সেঞ্চুরি নিয়ে দেশে ফিরেছেন।

 

 

 

 

এমন ভালো সময়ে নাকি তার কঠোর পরিশ্রম করতেও মন্দ লাগে না। বলেন ‘সময় ভালো গেলে পরিশ্রম করতে খারাপ লাগে না। আর খারাপ গেলে কিছুই ভালো লাগে না।’

 

 

 

 

 

 

তামিম ইকবালের সময় ভালো যাওয়া মানেই তো বাংলাদেশ ক্রি‌কেটের জন্য সুসংবাদ। ‘তামিমের ব্যাট হাসলে হাসে বাংলাদেশ।’ সন্দেহ নেই এ সময়কে সঙ্গে নিয়েই ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপে যাবেন টাইগারদের সর্বোচ্চ এই রান সংগ্রাহক।

 

 

 

 

 

 

এশিয়া কাপ সামনে রেখে সোমবার (২৭ আগস্ট ) থেকে মিরপুরে শুরু হবে দলের অনুশীলন ক্যাম্প। তার আগেই ব্যক্তিগত অনুশীলনে নেমে হয়তো দেশের জন্য দারুণ এক বার্তাই দিলেন লাল-সবুজের অভিজ্ঞ এ ওপেনার।