প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     কিছুদিন আগে অভিষেকেই বলিউড বক্স অফিস বাজিমাত করেছেন শ্রীদেবীকন্যা জাহ্নবী কাপুর। এবার প্রথমবারের মতো ‍র‍্যাম্পে হাঁটলেন তিনি। নচিকেত বারবির ডিজাইন করা পোশাকে ল্যাকমি ফ্যাশন সপ্তাহের তৃতীয় দিনে তিনি র‍্যাম্পে হাঁটেন।

 

 

 

 

র‍্যাম্পে হাঁটার পর ২১ বছর বয়সী জাহ্নবী গণমাধ্যমকে বলেন, নচিকেতের মিলেনিয়াল মহারানিস কালেকশনের পোশাক পরে হাঁটার সময় তিনি কিছুটা চিন্তিত ছিলেন। যখন তিনি আমাকে কাপড়ের নমুনা দেখালেন, মনে হয়েছিল এগুলো অসাধারণ কাপড়। তখনই মাথায় ঘুরছিল, এটা পরে কীভাবে ফ্যাশন শোতে যাব। কারণ, মনে হয়েছিল কাপড় খুব ভারী। কিন্তু পরার পর দেখি খুবই হালকা ও আরামদায়ক।

 

 

 

 

 

জাহ্নবী ইনস্টাগ্রামে একটি ছবিও পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখেন : নচিকেতের নতুন কালেকশন নিয়ে ‍র‍্যাম্পে হেঁটেছি। পোশাক নিয়ে বলেন, এটা ছিল খুবই নরম ও বিলাসবহুল।

 

 

 

 

 

তৃতীয় দিনে জাহ্নবী ছাড়াও শহিদ কাপুর, কারিশমা কাপুর ও দিশা পাটানি ফ্যাশন শোতে অংশ নেন। কারিশমা হাঁটেন অর্পিতা মেহতার পোশাক পরে এবং শহিদ ও দিশা হাঁটেন অমিত আগরওয়ালের পোশাক পরে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

 

 

 

 

জাহ্নবীর প্রথম ছবি ‘ধড়ক’ বক্স অফিসে ব্যাপক সাফল্য পায়। এর পরই করণ জোহর তাঁর ‘তাখত’ ছবিতে জাহ্নবীকে নেওয়ার ঘোষণা দেন।

 

 

 

 

 

এ মাসের শুরুর দিকে মুম্বাইয়ে ‘ধড়ক’ ছবির সাফল্যের জন্য একটি পার্টির আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক শশাঙ্ক খৈতান, প্রযোজক ও পরিচালক করণ জোহর, ঈশান খট্টর, জাহ্নবী কাপুর ও তাঁর বোন খুশি কাপুর।

 

 

 

 

 

ওই সময় সাংবাদিকেরা জাহ্নবীকে জিজ্ঞেস করেন, ‘তাখত’-এ যুক্ত হতে পেরে কেমন লাগছে? তিনি বলেন, ‘আমি কী বলতে পারি? আমি এখনো ঝাঁকুনির মধ্যে আছি। এ ঘোর এখনো কাটেনি। এটা আমার জন্য অনেক বড় কিছু। আমি সত্যিই কৃতজ্ঞ এবং খুবই সৌভাগ্যবান।’

 

 

 

 

 

 

জাহ্নবী আরো বলেন, ‘আশা করি, আমাদের কাজ দিয়েই আমরা মানুষকে প্রভাবিত করব। মানুষের সাড়া পেয়ে আমি খুব খুশি। এটা আমাদের জন্য বিশেষ মুহূর্ত এবং এর চেয়ে বড় কিছু হতে পারে না।’

 

 

 

 

 

‘তাখত’ মোগল আমলের কাহিনী নিয়ে যুদ্ধকাব্য। এটা পরিবার, আকাঙ্ক্ষা, লোভ, প্রতারণা, ভালোবাসা সবকিছু নিয়েই। এক কথায়, ‘তাখত’ যুদ্ধ ও ভালোবাসার গল্প।

 

 

 

 

 

 

‘তাখত’-এ বড় বড় তারকা অভিনয় করবেন। এদের মধ্যে রণবীর কাপুর, কারিনা কাপুর, আলিয়া ভাট, অনিল কাপুর, ভিকি কুশল ও ভূমি পেদনেকার রয়েছেন।

 

 

 

 

 

 

চিত্রনাট্য লিখেছেন সুমিত রায়। সংলাপ লিখেছেন সুমিত রায় ও হুসেইন হায়দরি। ছবির প্রযোজক হিরো ইয়াশ জোহর ও অপূর্ব মেহতা। ২০২০ সালে ছবিটি মুক্তি পাবে।