প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় বড় ভাবির সঙ্গে ছোট ভাইয়ের পরকীয়ার জের ধরে ছোট ভাইয়ের বউ এবং ভাসুর বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়েছে। তাদের দু’জনকেই বাঘা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

 

 

 

 

বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার পর উপজেলার তেঁথুলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। উপজেলার তেঁথুলিয়া গ্রামের আবদুল লতিফের স্ত্রী লাকির সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া সম্পর্ক চলে আসছিল তার ছোট ভাই জনি আহম্মেদের। এই ঘটনার জের ধরে জনির স্ত্রী স্মৃতির সাথে প্রায় ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকত।

 

 

 

 

এদিকে আত্মহত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ হাসপাতালের বিছানায় কাতরানো স্মৃতি খাতুন জানায়, তার স্বামী যদি তাকে ভালোবেসে কিংবা বাজার থেকে কোন কিছু এনে দেয় তাহলে তার ভাসুর স্ত্রী সেটা মেনে নিতে পারে না। এ নিয়ে মাঝে-মধ্যে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব বাধে।

 

 

 

 

সর্বশেষ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়িতে এ সব ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঝগড়ার এক পর্যায় সে বিষপান করে। তখন নিজের স্ত্রীর উপর অভিমান করে তার ভাসুরও বিষপান করে।

 

 

 

 

 

 

এ বিষয়ে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্তব্যরত চিকিৎসক রায়হান জানান, উভয়ের মুখ থেকে পাইপ দিয়ে বিষ তোলা হয়েছে। আপাতত বিপদ মুক্ত তারা। তবে এসব ঘটনায় রোগীকে ৪৮ ঘন্টা পরিচর্যায় রাখতে হয়।