প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     ড্রেসিংরুম থেকেই জরুরি তলব ঢাকায়-ওপেনিংয়ে কিছুই হচ্ছে না। সৌম্য সরকারকে যতো দ্রুত সম্ভব দুবাইয়ে পাঠানো হোক- জরুরি এই বার্তা পাওয়ার পরই ঢাকা-দুবাই কাছাকাছি ফ্লাইটের খোঁজ চলে। সৌম্যর সঙ্গে দুবাইয়ে নেওয়া হচ্ছে ইমরুল কায়েসকেও।

 

 

 

 

দুবাই থেকে বিসিবি সূত্রের খবর, শনিবার সন্ধ্যা সাতটায় দুবাইয়ে যাওয়ার ফ্লাইট ধরবেন সৌম্য-ইমরুল। বর্তমানে তারা দু’জন বিসিবি’র হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের অধীনে চার দিনের ম্যাচ খেলতে খুলনা অবস্থান করছেন।

 

 

 

 

 

রোববারই আবুধাবিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে পরের ম্যাচ রয়েছে বাংলাদেশের। ওপেনার সৌম্য সরকারের সঙ্গে ইমরুল কায়েসকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টাও চলছে।

 

 

 

তামিম ইকবালের চোট পাওয়ার পর নবাগত নাজমুল হাসান শান্ত সেভাবে নিজেকে প্রমাণ করতে পারেননি। আফগানিস্তানের সঙ্গে অভিষেক ম্যাচে ৭ আর ভারতের বিপক্ষে আজ করেছেন ৭ রান।

 

 

 

 

 

হতাশ করেছেন লিটন কুমার দাসও। এশিয়া কাপে তার ইনিংসগুলো এমন-৭, ৬, ০। অধিনায়ক মাশরাফি চাইছেন ওপেনিং থেকে অন্তত কিছু রান আসুক এবং কেউ একজন অন্তত লম্বা সময় ক্রিজে থাকুক। কেননা ব্যাটসম্যানরে ব্যর্থতায় গত দুটি ম্যাচের কোনোটিতেই পঞ্চাশ ওভার পর্যন্ত ব্যাটিং করতে পারেনি বাংলাদেশ।