প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     পদ্মা সেতু প্রকল্পের জাজিরা প্রান্তে ৪১ ও ৪২ নম্বর খুঁটিতে থাকা ‘৭এফ’ নম্বর স্প্যানের ওপর বসানো হলো রেলওয়ে বক্স স্ল্যাব। মঙ্গলবার সকাল থেকে কর্মযজ্ঞ শুরুর পর প্রথমবারের মতো স্প্যানের ওপর রেলওয়ে বক্স স্ল্যাব বসানোর কাজ সম্পন্ন হতে বিকেল গড়িয়ে যায়। প্রতিটি স্প্যানে চারটি সেকশনে আটটি করে মোট ৩২টি বক্স স্ল্যাব বসানো হবে।

 

 

 

 

মঙ্গলবার প্রথম স্ল্যাবটি বসানো হলো। পর্যায়ক্রমে আরও ৩১টি বক্স স্ল্যাব বসানোর কাজ চলমান থাকবে বলে জানিয়েছেন পদ্মা সেতু প্রকল্পের দায়িত্বশীল এক নির্বাহী প্রকৌশলী।

 

 

 

 

 

তিনি জানান, প্রতিটি বক্স স্ল্যাবের ওজন ৮ টন এবং তার দৈর্ঘ্য ২ মিটার ও ৫. ১৫ মিটার প্রস্থের। পদ্মা সেতুর ৪২টি খুঁটিতে থাকা ৪১টি স্প্যানের ওপর মোট ১ হাজার ৩১২টি রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে।

 

 

 

 

‘৭এফ’ নম্বর স্প্যানের ওপর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানোর লক্ষ্যে সোমবার মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ভাসমান ক্রেনে করে ৮টি রেলওয়ে স্ল্যাব জাজিরা প্রান্তে নিয়ে যাওয়া হয়। মঙ্গলবার সকাল থেকে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলী ও শ্রমিকরা প্রথম রেলওয়ে স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরু করেন।

 

 

 

 

 

নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, এই প্রথম স্প্যানের ওপর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরু করা হলো। জাজিরা প্রান্তের ৪১ ও ৪২ নম্বর খুঁটিতে থাকা স্প্যানের ওপর ২ মিটার দৈর্ঘের ও ৫. ১৫ মিটার প্রস্থের এবং ৮ টন ওজনের প্রথম স্ল্যাবটি বসানো হয়। এখন স্ল্যাবের মাঝে কংক্রিটি ঢালাই কাজের পক্রিয়া চলছে।

 

 

 

 

প্রকৌশলীরা জানান, ১৫০ মিটার দৈর্ঘের প্রতিটি স্প্যানের ওপর ৪টি সেকশনে ৮টি করে মোট ৩২টি স্ল্যাব বসানো হবে। মঙ্গলবার প্রথম স্ল্যাব বসানো হয়েছে, বাকী ৩১টি স্ল্যাব পর্যায়ক্রমে বসানোর পক্রিয়া চলমান রাখা হয়েছে। একটি স্প্যানের ওপর ৩২টি স্ল্যাব বসানোর হিসেব অনুযায়ী ৪১টি স্প্যানের ওপর বসানো হবে ১ হাজার ৩১২টি রেলওয়ে স্ল্যাব।

 

 

 

 

 

 

প্রকৌশলীরা আরও জানিয়েছেন, স্প্যানের ওপর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরুর আগে লোডটেস্টাসহ অন্যান্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ শেষ করা হয়। কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে ৭ শতাধিকের বেশি রেলওয়ে স্ল্যাব প্রস্তুত রাখা হয়েছে।