প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:        জীবনযাপন পদ্ধতি পরিবর্তের কারণে আজকাল সবাইকে সারাদিনই ব্যস্ত থাকতে হয়। রাস্তার যানজট, অফিসের কাজের চাপ, সন্তান লালন,দৈনন্দিন কাজকর্ম, ব্যক্তিগত কিংবা পারিবারিক সমস্যা-সব কিছু নিয়েই সবাই খুব চাপময় জীবনযাপন করেন।

 

 

 

 

এ ধরনের চাপে পড়ে অনেকসময় মন অস্থির হয়ে ওঠে।এ অবস্থায় ‘ব্রেথিং পদ্ধতির’ মাধ্যমে নিজেকে কিছুটা হলেও চাপমুক্ত করার চেষ্টা করতে পারেন। এর জন্য বাসার এক কোণে বা কোন ঘরে শান্ত বা নিরিবিলি জায়গা নির্বাচন করুন। অবশ্য অফিসের কোন জায়গাতেও এটা করতে পারেন।

 

 

 

 

প্রথমে দুই পা ক্রস করে চেয়ার অথবা মেঝেতে বসে পড়ুন। মেরুদণ্ড সোজা রাখুন।

 

 

 

চোখ বন্ধু রাখুন। দুই নাক দিয়ে ধীরে ধীরে নিঃশ্বাস নিন।

 

 

 

 

ডান হাতের মধ্য আঙ্গুলটা কপালের মাঝখানে রাখুন।একইসঙ্গে বৃদ্ধাঙ্গলিটা দিয়ে ডান নাকটা আটকে রাখুন। এবার বাম নাক দিয়ে আস্তে আস্তে নিঃশ্বাস নিতে নিতে পাঁচ পর্যন্ত গুনুন।একইভাবে নিঃশ্বাস ছাড়ুন।

 

 

 

 

একইভাবে বাম হাতের আঙ্গুল ব্যবহার করে বাম নাক বন্ধ করে ডান নাক দিয়ে নিঃশ্বাস নিন ও ছাড়ুন।

 

 

 

 

পাঁচ থেকে ছয় মিনিট এভাবে পাল্টাপাল্টি নাক দিয়ে নিঃশ্বাস প্রাকটিস করুন। মনে রাখবেন, এই ব্যায়ামের সময় নিঃশ্বাস নেওয়া বা ছাড়ার সময় মুখ দিয়ে নিঃশ্বাস নেবেন বা ছাড়বেন না।

 

 

 

 

 

দিনে ৫ থেকে ৬ বার ব্যায়ামটি করলে মন অনেকটাই ফুরফুরে থাকবে। ঘুমানোর আগেও ব্রিথিং কৌশলটা অনুসরন করতে পারেন। তবে সেটা খাওয়ার পর পরই না করলে ভাল।