প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থেকে অপহরণের ছয় দিন পর এক গৃহবধূকে রাজধানীর টিকাটুলি এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। অপহৃত ওই গৃহবধূর নাম সালমা খাতুন। তিনি উপজেলার তারাব পোড়াবাড়ি এলাকার শাহাদাত হোসেনের স্ত্রী। আজ শুক্রবার দুপুরে তাকে উদ্ধার করা হয়।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার তারাব সুলতানবাগ এলাকা থেকে অপহরণকারী মাহাবুব মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী সালমাকে উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত মাহাবুব পিরোজপুর জেলার নেচারাবাদ থানার টিলতালা এলাকার শাহজাহান মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, তিন বছর আগে উপজেলার তারাব পোড়াবাড়ি এলাকার শাহ আলমের ছেলে শাহাদাতের সঙ্গে সালমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে সায়মন নামে এক সন্তানের জন্ম হয়। শাহাদাত স্থানীয় শবনম ভেজিটেবল ফেক্টরিতে চাকরি করে আসছে। শাহাদাতের সঙ্গে মাহাবুব একই ফেক্টরিতে চাকরি করে। চাকরির সুবাদে শাহাদাতের সঙ্গে মাহাবুবের সুসম্পর্ক গড়ে উঠে।

সুসম্পর্কের কারণে শাহাদাতের অনুপস্থিতিতে মাহাবুব তার বাড়ি গিয়ে সালমাকে কুপ্রস্তাবসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখাতো। এসবে রাজি না হওয়ায় তাকে অপহরণসহ প্রাণনাশের হুমকি দিতো মাহাবুব। সালমা বিষয়টি শাহাদাতকে জানান। এরপর শাহাদাত বিষয়টি নিয়ে জিজ্ঞেস করলে মাহাবুব ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এ ধরনের হুমকির পর সালমাকে বাপের বাড়ি পাঠিয়ে দেয় শাহাদাত।

গত ৬ জানুয়ারি (শনিবার) বিকেলে সালমা তার বাপের বাড়ির উঠানে ঘোরাফেরা করছিলেন। এসময় মাহাবুবসহ অজ্ঞাত তিন থেকে চারজন দুর্বৃত্ত এসে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় সালমার বাবা আব্দুল হক বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, অপহরণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। অপহরণকারী মাহাবুবকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।