প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট : বিহারের মাউন্টেন ম্যান দশরত মাঝি ২২ ধরে পাথর ভেঙে তিনশ ৬০ ফুট রাস্তা তৈরি করেছেন। তাকে ঘিরে বলিউডে নির্মাণ করা হয়েছে চলচ্চিত্র। ‘মাঝি দ্য মাউন্টেন ম্যান’ নামের সেই চলচ্চিত্র ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিল।

এবার দশরত মাঝির মতো আরেকজনের সন্ধান পাওয়া গেছে। সন্তানদের স্কুলে পাঠানোর জন্য গত দু’বছর ধরে পাথর ভাঙছেন তিনি। প্রতিদিন নিয়ম করে আট ঘণ্টা ব্যয় করছেন এ কাজে।

বড়ো একটি হাতুড়ি নিয়ে সবজি বিক্রেতা জালান্ধর নায়েক কাজে লেগে যান। কান্ধামাল জেলার ফুলবানির গুমশাহি গ্রামের পাশে তিনি এ কাজ করে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যেই প্রায় আট কিলোমিটার রাস্তা চলাচলের জন্য উপযুক্ত করেছেন তিনি।

আরো সাত কিলোমিটাারর  রাস্তা তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে তার। ৪৫ বছর বয়সী এই আদিবাসীর ইচ্ছা তার তিন সন্তানকে নিরাপদে স্কুলে পাঠানোর পথ তৈরির জন্য যা করার দরকার তিনি তা করবেন।

জেলার সরকারি কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, এ কাজে তাকে সাহায্য করবেন। এজন্য তাকে পারিশ্রমিক দেওয়ার ব্যাপারেও ভাবা হচ্ছে। তবে মজার বিষয় হলো গুমশাহি নামের ওই গ্রামে কেবল জালান্ধর নায়েকের পরিবারই বসবাস করেন। এর বাইরে আর কোনো মানুষ সেখানে বসবাস করেন না।

সরকারিভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তার বাড়ি থেকে রাস্তা নির্মাণ করে দেওয়া হবে। এজন্য সরকারকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন জালান্ধর।