প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  ভিশন ২০৩০ এর লক্ষ্য সামনে রেখে সৌদি রাজ্যের ইতিহেসর সবচে’ বড় বাজেট ঘোষণা করলেন বাদশাহ সালমান। ২০১৮ অর্থবছরের জন্য মঙ্গলবার বাজেট ঘোষণা করেছে।

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, নাগরিকের অর্থনৈতিক চাপমুক্তি এবং সম্ভাব্য বিরূপ অর্থনৈতিক প্রভাব মোকাবিলার লক্ষ্যেই এই বিশাল বাজেট। বেসরকারি খাতকে উদ্ধুদ্ধ করতে বাজেটে নানান সুবিধা দেবার কথা বলা হয়েছে। রাজ্যের সমস্ত অঞ্চলের ব্যাপক উন্নয়ন খাতে বাজেটের বড় অংশ ব্যয় হবে।

 

বাদশাহ সালমান বলেন, আমি কোনো পার্থক্য ছাড়াই রাজ্যের সমস্ত অঞ্চলের ব্যাপক ও সুষম বিকাশের লক্ষ্যে কাজ চালিয়ে যেতে চাই। মন্ত্রী এবং কর্মকর্তাদের কর্মদক্ষতা বাড়াতে, সরকারি সেবা উন্নত করতে, নাগরিক সুযোগ-সুবিধা, উচ্চাকাঙ্ক্ষা এবং নাগরিক সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য বাজেট ব্যয়ে ও স্বচ্ছতা ও দক্ষতা বাড়াবার নির্দেশ দিয়েছেন বাদশাহ!

 

এতে বরাদ্দ করা হয়েছে ৯৭৮ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল, যা গত বছরের চেয়ে ৫.৬ শতাংশ বেশি। এ বাজেটকে দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেট বলে ঘোষণা করেছেন বাদশাহ সালমান। ২০১৭ অর্থবছরে বাজেটে বরাদ্দ ছিল ৯২৬ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল। ২০১৭ সালের তুলনায় তা ১২.৫ শতাংশ বেশি (৬৯৬ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল)। এ বছর ঘাটতি ধরা হয়েছে ১৯৫ বিলিয়ন রিয়াল।

চলতি বছরে যা ছিল ২৩০ বিলিয়ন। পণ্য ও সেবা থেকে প্রত্যাশিত রাজস্ব আয় ৮৫ বিলিয়ন রিয়াল হবে বলে ধরা হয়েছে।