প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  মেক্সিকোর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে পর্যটকবাহী একটি বাস দুর্ঘটনায় অন্তত ১২ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। মঙ্গলবার সকালে দেশটির কিনতানা রো রাজ্যে এ দুর্ঘটনায় আরো ১৮ জন আহত হয়েছেন, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্স, বিবিসির।

 

দুর্ঘটনায় পড়া বাসটির যাত্রীরা প্রমোতরী থেকে নেমে বাসটিতে উঠেছিলেন। তারা প্রাচীন মায়া সভ্যতার নিদর্শনগুলো দেখতে চাকোবেনের প্রত্নতাত্ত্বিক এলাকায় যাচ্ছিলেন। কিন্তু মাহাগুয়াল ও কাফেতালের মধ্যবর্তী এলাকায় তাদের বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়।

 

বাসটিতে ৩১ জন যাত্রী ছিলেন, এদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ইতালি ও সুইডেনের নাগরিক ছিল বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। নিহতদের মধ্যে একটি শিশুও রয়েছে। মেক্সিকোর যুকাতান উপদ্বীপের তিনটি রাজ্যের মধ্য কিনতানা রো অন্যতম। এই রাজ্যে অনেকগুলো জনপ্রিয় পর্যটন এলাকা আছে। রয়্যাল ক্যারাবিয়ান ইন্টারন্যাশনালের মুখপাত্র সিনথিয়া মার্টিনেজ জানিয়েছেন, বাসটির যাত্রীদের মধ্যে ২৭ জন তাদের কম্পানির প্রমোদতরীযোগে ভ্রমণ করছিল।

 

যাত্রীদের সঙ্গে স্থানীয় এক চালক ও একজন টুরিস্ট গাইডও ছিলেন।

দুর্ঘটনার পর যাত্রীদের হাসপাতালে নেওয়া হয় বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে বাস কম্পানি কোস্তা মায়া। প্রাথমিক চিকিৎসার পর পাঁচজনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে এবং অন্যান্য আহতদের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। ঘটনার বিষয়ে একটি তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে কিনতানা রো রাজ্য সরকার।