প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  আমাদের দেশের একটি জনপ্রিয় সবজির নাম বাঁধাকপি। এ সবজি ওজন কমানো থেকে শুরু করে ক্যান্সারের মতো রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে থাকে। সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় বাঁধাকপি রাখা উচিত।

১. ক্যান্সার প্রতিরোধ
বাঁধাকপিতে ভিটামিন এ, ভিটামিন সিসহ আরো অনেক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান আছে, যা দেহে ক্যান্সারের কোষ বিস্তার করাকে রোধ করে। যা কোলন, ব্রেস্ট এবং প্রস্টেট ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। কিছু প্রজাতির বাঁধাকপিতে ৩৬ রকমের ফ্ল্যাভোনয়েড এবং অ্যানথ্রোসায়ানিন আছে, যা ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে।

২. স্থূলতা কমায়
এককাপ বাঁধাকপিতে ৩৩ ভাগ ক্যালরি, লো ফ্যাট এবং উচ্চ ফাইবার রয়েছে। আপনি যদি ডায়েট করে থাকেন, তবে প্রতিদিনকার সবজির তালিকায় বাঁধাকপি রাখুন, যা আপনার ওজন দ্রুত কমাতে সাহায্য করবে।

৩. দেহের বিষ দূর করে
প্রচুর পরিমাণের ভিটামিন সি, সালফার দেহের বিষাক্ত পদার্থ ও ইউরিক অ্যাসিড দূর করে থাকে। এটি বাত, গেঁট বাত, স্কিন ইনফেকশন প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

৪. বুড়িয়ে যাওয়া বিলম্বিত করে
বয়স বাড়লে ত্বকের বলিরেখা বৃদ্ধি পায়। তবে নিয়মিত বাঁধাকপি খাওয়া হলে এটি ত্বকে বলিরেখা পড়া রোধ করতে সাহায্য করবে। এর ভিটামিন সি ত্বকের তারুণ্য ধরে রেখে বয়সের ছাপ পড়া দেরি করিয়ে দেয়। এর ভিটামিন এ এবং ভিটামিন ডি ত্বক পরিষ্কার করে এবং ত্বককে আলট্রা ভায়োলেট রশ্মির হাত থেকে রক্ষা করে। ফলে বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করতে এটি যথেষ্ট কার্যকর।

৫. মাথাব্যথা দূর করে
বাঁধাকপির পাতা কুচি করে একটি কাপড়ে পেঁচিয়ে সেটি দিয়ে কপালে ছেঁকা দিন। এর সঙ্গে কাঁচা বাঁধাকপি জুস প্রতিদিন পান করুন। এটি ক্রনিক মাথাব্যথা দূর করতে কার্যকর।

৬. কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে
বাঁধাকপিতে রয়েছে প্রচুর আঁশ। এটি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে। কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকলে নিয়মিত বাঁধাকপি খান, এটি দ্রুত কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করবে।