প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  ক্রিকেটে যেমন ভারত-পাকিস্তান মহারণ, আন্তর্জাতিক ফুটবলে যেমন ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা মহারণ, তেমনি ক্লাব ফুটবলে সবচেয়ে বেশি রোমাঞ্চ ছড়ায় বার্সালোনা-রিয়াল মাদ্রিদ মহারণ। স্পানিশ লা লিগার এই দুটি দলের মুখোমুখি লড়াই সারাবিশ্বে পরিচিত এল ক্লাসিকো নামেই।

 

 

মাঠে এবং মাঠের বাইরে সর্বত্রই শুরু হয়ে যায় রোমাঞ্চের আমেজ। সব কিছু ছাপিয়ে এটা হয়ে যায় মর্যাদার লড়াই। তবে এবারের ম্যাচটি আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়েছে দুই দলের জন্যই। আগামী শনিবার সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে অনুষ্ঠিত হবে ফুটবলের এই মহালড়াই।

 

এই লড়াইয়ের আগে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে আছে বার্সালোনা। যদিও তারা ম্যাচ একটি বেশি খেলেছে। তবে এবারের ক্লাসিকো জিতলে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে যাবে বার্সালোনা। যার কারনে রিয়াল মাদ্রিদ পরের ম্যাচটি জিতলেও ১১ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে থাকবে বার্সা। আর বার্সা ১১ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে গেলে শিরোপা রেস থেকে মাঝপথেই ছিটকে পড়বে রিয়াল মাদ্রিদ।

তাই বার্সাকে হারিয়ে শিরোপা রেসে টিকে থাকতে মরিয়া রিয়াল মাদ্রিদ। জিতলে শিরোপার স্বপ্ন বেঁচে থাকবে রিয়াল মাদ্রিদের। আর হারলে শিরোপার স্বপ্ন বিষর্জন দিতে হবে মৌসুমের মাঝপথেই।

 

অবশ্য মৌসুমের শুরুতেই এই দুই দলের লড়াই হয়েছিল দুইবার। সেটা হয়েছিল স্পানিশ সুপার কাপে। দুই লেগের সেই ফাইনালের দুটি ম্যাচেই বার্সাকে নাচিয়ে ছেড়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। তবে তার পর থেকেই ঘুরে দাড়িয়ে এখন লা লিগার শীর্ষে বার্সালোনা। অন্যদিকে সেই ম্যাচের পর নিজেদের হারিয়ে খুজতে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ এখন পয়েন্ট তালিকার চার নম্বরে। রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সালোনার শনিবারের ম্যাচটি ২৩৬তম এল ক্লাসিকো। এর আগে আরো ২৩৫ বারের লড়াইয়ে ৯৫ বার জিতেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ৯১ বার জিতেছিল বার্সালোনা ও ড্র হয়েছে ৪৯ বার। এর মধ্যে স্পানিশ লা লিগায় রিয়ালের জয় ৭২টি, বার্সার জয় ৬৯টি, ড্র হয়েছে ৩৩টি।