প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ চার জনের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ সাত বছর সাজার দাবি জানিয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ। আজ মঙ্গলবার পুরান ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসায় স্থাপিত বিশেষ আদালত-৫ যুক্তিতর্ক উপস্থাপনকালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল এ দাবি জানান।

যুক্তি উপস্থাপনে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁশলি মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকাকালে (২০০১ থেকে ২০০৬ সাল) ক্ষমতার অপব্যবহার করে নিজে ও অন্যকে লাভবান করার জন্য জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট গঠন করেন। মামলায় খালেদা জিয়ার সাত বছরের সাজা চাই।

এর আগে মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টায় গুলশানের বাসভবন থেকে রওনা হয়ে ১১টা ৫৫ মিনিটে রাজধানীর বকশীবাজার কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত ৫ এ হাজির হন তিনি। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁশলি মোশাররফ হোসেন কাজল এ মামলার যুক্তি উপস্থাপন শুরু করেন।

গত ২৫ জানুয়ারি আদালত-৫ এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামান ৩০, ৩১ জানুয়ারি ও ১ ফেব্রুয়ারি জিয়া চ্যারিটেবল দুর্নীতি মামলায় যুক্ততর্কের জন্য দিন ধার্য করেন। ওই দিন জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়েছে। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি ওই মামলার রায় ঘোষণা করা হবে।