প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  ব্রণের সমস্যা অনেক বাজে ধরণের একটি সমস্যা। কারণ গায়ের রঙ যেমনই হোক না কেন ত্বকে ব্রণ থাকলে খুবই বিরক্ত লাগে। কমবেশি সকলেই এই ব্রণ এবং ব্রণ জনিত দাগের কারণে বিরক্ত। বাজারের যতো ভালো ক্রিমটিই ব্যবহার করা হোক না কেন ব্রণের সমস্যা বাড়তেই থাকে, কমে না। সেই সাথে দাগ পড়ে যায় ত্বকে। কিন্তু খুব সহজেই প্রাকৃতিক উপাদান দিয়েই ব্রণ এবং ব্রণের দাগের সমস্যার সমাধান করে ফেলতে পারেন। আজকে জেনে নিন এমনই দারুণ ৫ টি উপায়।

১) অলিভ অয়েল
ব্রণের কারণে ত্বকে যে ক্ষতি হয় এবং দাগের সৃষ্টি করে তা দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী এই অলিভ অয়েল। অলিভ অয়েলের সাথে সামান্য লবণ মিশিয়ে ত্বকে লাগান। দেখবেন ব্রণের সমস্যা ও সেই সাথে ব্রণের ও অন্যান্য দাগ ত্বক থেকে দূর হয়ে যাবে।

২) শসা
শসার প্রায় ৯০% পানি যা ত্বকের রোমকূপে জমে থাকা ময়লা দূর করতে বিশেষভাবে সহায়ক। শসার রোদ ভালো করে মুখে লাগিয়ে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এতে করে রোমকূপের ময়লা, অতিরিক্ত তেল এবং মরা কোষ চলে যাবে। এতে করে আপনি রেহাই পাবেন ব্রণের হাত থেকে।

৩) রসুন
রসুনের অ্যালিসিন, জিংক, সালফার এবং ক্যালসিয়াম ত্বকের জন্য বেশ ভালো উপাদান। এছাড়াও রসুনের অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিফাঙ্গাল উপাদান ব্রণের সংক্রমণ থেকে ত্বককে রক্ষা করে। আপনি কাঁচা রসুন খেতে পারেন, এতে করে ত্বক ভেতর থেকে পুষ্টি পাবে ও ব্রণের উপদ্রব কমবে।

৪) লেবুর রস
লেবুর রসের ভিটামিন সি, সাইট্রিক অ্যাসিড এবং অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ব্রণের সমস্যা চিরতরে দূর করার ক্ষমতা রাখে। এছাড়াও এটি প্রাকৃতিক ব্লিচ বলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে। ১ চামচ মধু ও ১ চামচ লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করে নিন। প্রতিদিনের ব্যবহারে ব্রণের সমস্যা খুব সহজেই দূর হবে। তবে যদি লেবুতে অ্যালার্জি থাকে তাহলে এই পদ্ধতি থেকে দূরে থাকুন।

৫) মধু ও দারুচিনি
মধুর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান ব্রণের সমস্যা দূর করে এবং সেই সাথে ত্বকের দাগ দূর করতেও সহায়তা করে। দারুচিনি প্রদাহ এবং বন্ধ হয়ে যাওয়া রোমকূপ খুলতে সহায়তা করে। মধু ও দারুচিনি গুঁড়ো একসাথে মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন প্রতিদিন। বেশ ভালো ফলাফল পাবেন।